একজন মোকতাদির চৌধুরী সম্পর্কে আমার কিছু কথা: শোভন

নিজস্ব প্রতিবেদক

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং স্থানীয় সাংসদ যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীকে নিয়ে ফেইসবুকে একটি আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাদৎ হোসেন শোভন।

আজ বুধবার সন্ধ্যা ৭:৪০ মিনিটে নিজের ফেসবুক টাইমলাইনে মোকতাদির চৌধুরীকে নিয়ে তিনি যে স্ট্যাটাসটি দিয়েছেন সেটি মত ও পথ পাঠকদের জন্য হুবোহু তুলে ধরা হলো-

যে মানুষটি আজ থেকে ৫০ বছর আগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে এই দেশকে স্বাধীন করার লক্ষ্যে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবন বাজি রেখে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। যে ব্যক্তিটি পাক-হানাদারের বুলেটের আঘাতে মারাত্মকভাবে আহত হয়ে আজও এর রেশ বয়ে বেড়াচ্ছেন। জ্বী, আমি সেই রণাঙ্গনের একজন যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ‘র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর’ কথাই বলছি।

আজ স্বাধীনতার ৫০ বছর পর যখন জাতি স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করেছে ঠিক এই সময়ে এসেও স্বাধীনতাবিরোধী স্বঘোষিত রাজাকার আজিজুল হক পুত্র মামুনুল হকরা মোকতাদির চৌধুরীকে নিয়ে কথা বলার ধৃষ্টতা দেখায়! আমি অবাক হয়ে যাই একজন রণাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধা, যাদের ত্যাগ এবং রক্তের বিনিময়ে আমরা পেয়েছি একটি স্বাধীন বাংলাদেশ, সেই মোকতাদির চৌধুরীদের নিয়ে স্বাধীনতাবিরোধিরা তীর্যক কথা বলে যায় আর আমরা যারা নিজেদের স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি বলে দাবি করে আসছি তারা সবাই চুপ করে আছি!?

আজ আমাদের সকলের প্রিয় ব্রাহ্মণবাড়িয়া এক বিধ্বংসী নগরীতে পরিণত হয়েছে। যে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি এর জন্য দায়ী তাদের বিরুদ্ধে দৃঢ়ভাবে প্রতিবাদ করায়, অসম্প্রদায়িক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্বপ্নদ্রষ্টা, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযুদ্ধা জননেতা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপিকে নিয়ে স্বাধীনতাবিরোধী সাম্প্রদায়িক অপশক্তিরা আজ নানামুখী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।

আপনারা কী ভুলে গেছেন মোকতাদির চৌধুরী এই জাতির এক অন্যতম শ্রেষ্ঠ সন্তান? ৭১ এর একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা?
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশকে একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তোলার যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, সেই স্বপ্নের উত্তরসূরী হয়ে, অসাম্প্রদায়িকতার আলোকবিন্দু হয়ে, জাতির পিতা শেখ মুজিবের সেই স্বপ্নকে উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী ধারণ ও লালন করেন এবং সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে মোকতাদির চৌধুরী প্রতিনিয়ত সচেষ্ট আছেন।

প্রিয় ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসি,
আসুন, অসাম্প্রদায়িক ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়তে মোকতাদির ভাইয়ের হাতকে শক্তিশালী করি। আসুন শিক্ষা, শান্তি, সংস্কৃতি ও সম্প্রীতির ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়তে মোকতাদির ভাইয়ের হাতকে শক্তিশালি করি। আসুন দাঙ্গা-হাঙ্গামা, চাঁদাবাজ, ছিনতাই ও সন্ত্রাসমুক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়তে মোকতাদির ভাইয়ের হাতকে শক্তিশালী করি।

আসুন ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত আধুনিক, উন্নত এবং সমৃদ্ধ এক আগামীর ব্রাহ্মণবাড়িয়া গড়তে মোকতাদির ভাইয়ের হাতকে শক্তিশালী করি।
সেই সাথে আসুন এইসব স্বাধীনতাবিরোধিদের দোসর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ধ্বংসকারী, তাণ্ডবীদের প্রতিহত করি।

রণাঙ্গনের একজন যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির ভাইকে নিয়ে ধৃষ্টতা দেখানো সেসকল পাকি হক গং দের আমরা দাঁত ভাঙ্গা জবাব অচিরেই দিব, কেননা সময় এসে গেছে এসব ভন্ডদের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলার!

মনে রাখবেন,
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মাটি…
বীর মুক্তিযোদ্ধা র আ ম উদায়দুল মোকতাদির ভাইয়ের ঘাটি।
জয় বাংলা,
জয় বঙ্গবন্ধু।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •