করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ৭৭ জনের মৃত্যুর রেকর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু
ফাইল ছবি

রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৬৬১ জনে। ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ৫৩ জন পুরুষ এবং ২৪ জন নারী।

এ সময়ে নমুনা পরীক্ষায় নতুন আরও পাঁচ হাজার ৩৩৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ছয় লাখ ৭৮ হাজার ৯৩৭ জনে।

২৪ ঘণ্টায় দেশের সরকারি-বেসরকারি ২৪৩টি ল্যাবরেটরিতে ২৫ হাজার ১৮৫টি নমুনা সংগ্রহ ও ২৬ হাজার ৭৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

আজ শনিবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

গত ২৪ ঘণ্টায় ২৬ হাজার ০৭৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।এ সময়ে নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৪৯ শতাংশ। এ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা ৪৯ লাখ ৭৩ হাজার ৪৮৯ জন। প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬৫ শতাংশ।

এ সময়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন তিন হাজার ৮৩৭ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল পাঁচ লাখ ৭২ হাজার ৩৭৮ জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৮৪ দশমিক ৩০ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত ৭৭ জনের মধ্যে দশোর্ধ্ব একজন, বিশোর্ধ্ব তিনজন, ত্রিশোর্ধ্ব দুইজন, চল্লিশোর্ধ্ব পাঁচজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ২২ জন এবং ষাটোর্ধ্ব ৪৪ জন রয়েছেন।

বিভাগওয়ারি হিসেবে দেখা গেছে, মৃত ৭৭ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৫১ জন, চট্টগ্রামে ১৫ জন, রাজশাহীতে তিনজন, খুলনায় দুইজন, বরিশালে একজন, সিলেটে একজন এবং রংপুর বিভাগে চারজনের মৃত্যু হয়।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। আর প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে গত বছরের ১৮ মার্চ। চলতি বছরের শুরুর দিকে করোনা ‘প্রায় নিয়ন্ত্রণে’ চলে আসলেও মার্চ মাসের শেষ দিক থেকে সংক্রমণ এবং মৃত্যু আবারও ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে।

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share