টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ, শরিফুলের অভিষেক

ক্রীড়া প্রতিবেদক

টস
টস করা। সংগৃহীত ছবি

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে সফররত শ্রীলঙ্কাকে ৩৩ রানে হারিয়ে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ (মঙ্গলবাল) টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হয় বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টায়। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ১ ওভারে ১৫। ব্যাট করছেন তামিম ও লিটন।

প্রথম ওয়ানডের একাদশ থেকে পরিবর্তন এসেছে দুটি। টি-টোয়েন্টি এবং টেস্টের পর এবার ওয়ানডেতে অভিষেক হলো উদীয়মান টাইগার পেসার শরিফুল ইসলামের। আর মোহাম্মদ মিঠুনের পরিবর্তে সুযোগ পেয়েছেন অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। অন্যদিকে লঙ্কান দলে কোনো পরিবর্তন আসেনি।

universel cardiac hospital

এর আগে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মুশফিকের ৮৪, মাহমুদউল্লাহর ৫৪ এবং তামিমের ৫২ রানের সুবাদে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২৫৭ রান তুলে বাংলাদেশ। জবাবে ব্যাট করতে নেমে মেহেদী হাসান মিরাজ এবং মোস্তাফিজুর রহমানদের বোলিং তোপে মাত্র ২২৪ রানের থেমে যায় লঙ্কানদের ইনিংস।

আজ জিততে পারলে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিশ্চিত করবে টাইগাররা। আর সেই লক্ষ্যেই হয়তো খেলতে নামছে রাসেল ডোমিঙ্গোর শিষ্যরা। তবে প্রথম ম্যাচে সহজ জয় পেলেও বেশ সতর্ক থাকতে হবে স্বাগতিকদের। কেননা তারুণ্য নির্ভর লঙ্কান দলে রয়েছে এক ঝাঁক তরুণ তারকা ক্রিকেটার। যেকোনা সময়ই জ্বলে উঠতে পারেন তারা।

এজন্য আবারো ব্যাট হাতে নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রতিষ্ঠা করার দায়িত্ব নিতে হবে মুশফিক-মাহমুদউল্লাহ-তামিম-সাকিবদের। তবে শুধুই অভিজ্ঞদের ওপর নির্ভর করে থাকলেই চলবে না। দায়িত্ব নিতে হবে তরুণদেরও। তাই লিটন-মিঠুনদের দিকেও চোখ থাকবে টাইগার সমর্থকদের।

প্রথম ম্যাচে বল হাতে দুর্দান্ত ছিলেন টাইগার স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ এবং কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। মাত্র ৩০ রানের খরচায় ৪টি উইকেট লুফে নিয়ে ম্যাচের সেরা পারফরমারের পুরস্কার পান মেহেদী। এদিকে ৩৪ রান দিয়ে ৩টি উইকেট পেয়েছেন মোস্তাফিজ। দ্বিতীয় ম্যাচেও তাদের দ্যুতি ছড়াতে হবে।

তবে প্রথম ম্যাচে বল হাতে নিষ্প্রভ ছিলেন সাকিব-তাসকিনরা। তাদেরও এ ম্যাচে দায়িত্বশীল ক্রিকেট খেলতে হবে।

বাংলাদেশ একাদশ

তামিম ইকবাল, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদি হাসান মিরাজ, শরিফুল ইসলাম এবং মোস্তাফিজুর রহমান।

শ্রীলঙ্কা একাদশ

কুশল পেরেরা, ধানুষ্কা গুনালিলাকা, পাথুম নিশানকা, কুশল মেন্ডিস, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা,আশেন বান্দেরা, ধাসুন শানাকা, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, উসুরু উদানা, লাকসান সান্দাকান, দুশমান্থা চামিরা।

শেয়ার করুন