এলএসডিসহ গ্রেফতার: বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ শিক্ষার্থী রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী

এলএসডি (লাইসার্জিক অ্যাসিড ডাইইথ্যালামাইড) মাদক সেবন ও বেচাকেনার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচ ছাত্রকে পাঁচ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দিয়েছেন আদালত। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ সোমবার এই আদেশ দেন।

রিমান্ডপ্রাপ্ত ৫ আসামি হলেন সাইফুল ইসলাম সাইফ (২০), এস এম মনওয়ার আকিব (২০), নাজমুস সাকিব (২০), নাজমুল ইসলাম (২৪) ও বি এম সিরাজুস সালেকীন (২৪)।

এর আগে ৫ আসামিকে আদালতে হাজির করে ১০ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার আবেদন করে পুলিশ। উভয় পক্ষের শুনানি নিয়ে আদালত প্রত্যেকের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মতিঝিল বিভাগ বলছে, গ্রেপ্তার ৫ জনকে জিজ্ঞাসাবাদে এলএসডি ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত আরও ১৫ টি গ্রুপের সন্ধান পেয়েছে তারা। তাদের কাছ থেকে ২ হাজার মাইক্রোগ্রাম এলএসডি, আইস ও গাঁজা জব্দ করা হয়।

১৫ মে নিহত হওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র হাফিজুর রহমানের মৃত্যুর ঘটনা তদন্ত করতে গিয়ে এলএসডির সন্ধান পায় ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগ। অভিযান চালিয়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন ছাত্রকে গ্রেফতার করে তারা। ডিবি জানায়, হাফিজুরকে তাঁর বন্ধুরা এলএসডি সেবন করানোর পর তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রশাসনিক ভবনের সামনে এক ডাব বিক্রেতার দা কেড়ে নিয়ে নিজের গলায় চালিয়ে দেন। এর কয়েক ঘণ্টা পর তাঁর মৃত্যু হয়। ডিবির এই বক্তব্যের পর এলএসডি নতুন করে আলোচনায় আসে।

মতিঝিল বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. আ. আহাদ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, শাহজাহানপুর, রামপুরা, বাড্ডা ও ভাটারা এলাকায় অভিযান চালিয়ে এই পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে তাঁরা এক বছর ধরে এলএসডি সেবন ও বিক্রির সঙ্গে জড়িত বলে জানিয়েছেন। অনলাইন বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে তাঁরা আসক্ত হয়ে এলএসডি সেবন শুরু করেন। তাঁরা নিজেরাও অনলাইনে তাঁদের এই ব্যবসার কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিলেন।

আ. আহাদ বলেন, গ্রেপ্তার এই পাঁচজন জানিয়েছেন, রাজধানীতে ১৫টি গ্রুপ রয়েছে, যারা এলএসডি বিক্রি করে আসছে। কুরিয়ার, লাগেজসহ বিভিন্ন মাধ্যমে দেশে এলএসডি নিয়ে আসে। গ্রুপের বাকি সদস্যদের গ্রেপ্তার করলে বোঝা যাবে, তাঁরা দেশে কত দিন ধরে সক্রিয়।

এদিকে ডিবির কাছে আগে গ্রেফতার বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন শিক্ষার্থীর পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল রোববার ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত ভার্চ্যুয়াল শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

ওই তিন শিক্ষার্থী হলেন সাদমান সাকিব ওরফে রুপল (২৫), আসহাব ওয়াদুদ ওরফে তূর্য (২২) ও আদিব আশরাফ (২৩)। তাঁরা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যবসায় প্রশাসনে (বিবিএ) পড়েন। এলএসডি উদ্ধারের ঘটনায় গ্রেপ্তার তিনজনকে সাত দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ। ভার্চ্যুয়াল শুনানি নিয়ে আদালত প্রত্যেকের পাঁচ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •