আইনজীবী তালিকাভুক্তির মৌখিক পরীক্ষা ২৫ জুলাই শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক

আইনজীবী
আইনজীবী। প্রতীকী ছবি

আগামী ২৫ জুলাই থেকে আইনজীবী তালিকাভুক্তিকরণের মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে। ২০২০ সালের ১৯ ডিসেম্বর ও চলতি বছরের ২৭ ফেব্রুয়ারি লিখিত পরীক্ষায় যারা পাস করেছেন ২৫ জুলাই থেকে তাদের মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হবে। বুধবার বার কাউন্সিলের ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত একটি নোটিশ দেয়া হয়েছে।

পরীক্ষার হলে শিক্ষার্থীকে প্রবেশপত্র আনতে হবে। তবে কোথায় কখন মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে সেটি পরে জানানো হবে বলে জানিয়েছেন বার কাউন্সিলের সচিব জেলা ও দায়রা জজ রফিকুল ইসলাম।

universel cardiac hospital

গত ৩০ মে বার কাউন্সিলের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন পাঁচ হাজার ৩৩৫ জন শিক্ষার্থী। পরবর্তীতে আইনজীবী তালিকাভুক্তিকরণে তৃতীয় পরীক্ষকের হাতে লিখিত পরীক্ষায় পাস করেন আরও ১৩৩ জন আইন শিক্ষানবিশ। এবারের লিখিত পরীক্ষায় ১৩ হাজারের মতো শিক্ষানবিশ আইনজীবী অংশ নেন।

কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলার কারণে লিখিত পরীক্ষা দুবার পেছায়। ২০২০ সালের ১৯ ডিসেম্বর লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় নয়টি কেন্দ্রে। রাজধানীর আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ, শেখ বোরহান উদ্দিন পোস্ট গ্রাজুয়েট কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, মোহাম্মদপুর মহিলা কলেজ, মোহাম্মদপুর কেন্দ্রীয় কলেজ, সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজ, বিসিএসআইআর হাইস্কুল, গভর্নমেন্ট মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ঢাকা মহানগর মহিলা কলেজ। এর মধ্যে মোহাম্মদপুর মহিলা কলেজ, মোহাম্মদপুর কেন্দ্রীয় কলেজ, বিসিএসআইআর উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং ঢাকা মহানগর মহিলা কলেজ কেন্দ্রের পরীক্ষার্থীদের লিখিত পরীক্ষা বাতিল করা হয়।

পরে বাতিল পাঁচটি কেন্দ্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় চলতি বছরের ২৭ ফেব্রুয়ারি। নয়টি কেন্দ্রে ১২ হাজার ৮৭৮ জন শিক্ষার্থী লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেন। পরীক্ষার প্রশ্ন কঠিনের অজুহাতে কিছু শিক্ষার্থী বিশৃঙ্খলা করেন। এ ঘটনায় মামলা দায়ের এবং অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থীকে রিমান্ডে নেয় পুলিশ।

২০২০ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি প্রায় ৭০ হাজার শিক্ষানবিশ আইনজীবী এমসিকিউ পরীক্ষায় অংশ নেন। এর মধ্যে এমসিকিউতে উত্তীর্ণ হন আট হাজার ৭৬৪ জন। এছাড়া ২০১৭ সালে ৩৪ হাজার শিক্ষার্থীর মধ্য থেকে লিখিত পরীক্ষায় দ্বিতীয় ও শেষবারের মতো বাদ পড়া তিন হাজার ৫৯০ শিক্ষার্থীসহ মোট ১২ হাজার ৮৭৮ জন শিক্ষার্থী এবারের লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেন।

এর আগে ২০২০ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর লিখিত পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয় বার কাউন্সিল। কিন্তু করোনার কারণে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় সরকার। তাই করোনার সংক্রমণের মধ্যে পূর্বের নোটিশ অনুসারে পরীক্ষা নিতে পারেনি বার কাউন্সিল। পরে ২০২০ সালের ১৯ ডিসেম্বর লিখিত পরীক্ষা নেয়া হয়।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •