দক্ষিণ আফ্রিকার শেষ শ্বেতাঙ্গ প্রেসিডেন্ট ডি ক্লার্কের মৃত্যু

ডেস্ক রিপোর্ট

এফ ডব্লিউ ডি ক্লার্ক

দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট ও দেশটিকে শাসনকারী শেষ শ্বেতাঙ্গ এফ ডব্লিউ ডি ক্লার্ক মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকালে কেপ টাউনের নিজ বাসভবনে তার মৃত্যু হয় বলে এফ ডব্লিউ ডি ক্লার্ক ফাউন্ডেশন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছর ক্যান্সার ধরা পড়ার পর ৮৫ বছর বয়সে মারা গেলেন দক্ষিণ আফ্রিকার গণতান্ত্রিক রূপান্তরের অন্যতম প্রধান এ ব্যক্তিত্ব।

universel cardiac hospital

ডি ক্লার্ক সেপ্টেম্বর, ১৯৮৯ থেকে মে, ১৯৯৪ পর্যন্ত দেশটির শ্বেতাঙ্গ সংখ্যালঘু সরকারের প্রধান ছিলেন।

১৯৯০ সালে বর্ণবাদ বিরোধী নেতা নেলসন ম্যান্ডেলাকে মুক্তি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন ক্লার্ক। এর মধ্যদিয়েই ১৯৯৪ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় বহুদলীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানের পথ উন্মুক্ত হয়েছিল। এই নির্বাচনে জিতে নেলসন ম্যান্ডেলার আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেস পার্টি দেশের ক্ষমতা গ্রহণ করেছিল।

ক্লার্ক ফাউন্ডেশনের বিবৃতিতে বলা হয়, “মেসোথেলিওমা ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করার পর আজ সকালে (বৃহস্পতিবার) ফ্রেসনের নিজ বাসভবনে শান্তিপূর্ণভাবে মারা গেছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট এফ ডব্লিউ ডি ক্লার্ক।”

১৯৯৩ সালে ম্যান্ডেলার সঙ্গে যৌথভাবে নোবেল শান্তি পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকায় বর্ণবাদ অবসানের পর ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে গণতন্ত্রে উত্তরণে তার ভূমিকা নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক দেখা যায় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

চলতি বছর মার্চে ধরা পড়ে তিনি মেসোথেলিওমায় আক্রান্ত। এই ক্যান্সারে ফুসফুসের আস্তরণের টিস্যু ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

“মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী এলিটা, সন্তান জান ও সুসান এবং নাতি-নাতনিদের রেখে গেছেন,” বলেছে ক্লার্ক ফাউন্ডেশন।

শেয়ার করুন
  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    6
    Shares