ট্রেনে অগ্নিকাণ্ড: ঘটনাস্থল পরিদর্শনে রেলওয়ের তদন্ত দল

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

মৌলভীবাজারে পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থল সরেজমিন পরিদর্শন করেছে রেলওয়ের একটি তদন্ত দল। আজ রোববার রোববার বেলা একটায় রেলওয়ের সিলেট অঞ্চলের প্রধান ট্রাফিক কর্মকর্তা মো. সালাহ উদ্দীনের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত দলটি ঘটনাস্থল কমলগঞ্জের চক কবিরাজি এলাকা পরিদর্শন করে।

তদন্ত দলে আরও ছিলেন রেলওয়ের সিলেট অঞ্চলের সহকারী ট্রাফিক কর্মকর্তা আরিফুর রহমান ও কুলাউড়ার ট্রাফিক কর্মকর্তা রুবেল আহমেদ। তদন্ত দলটি ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী, আগুন নেভাতে সহায়তাকারী এবং যাত্রীদের সহায়তাকারী গ্রামবাসীর সঙ্গেও কথা বলে। এ ছাড়া মৌলভীবাজারের ফায়ার সার্ভিস প্রধান হারুন পাশাও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। শমশেরনগর রেলওয়ে স্টেশনমাস্টার মো. জামাল উদ্দীন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

universel cardiac hospital

গতকাল শনিবার বেলা পৌনে একটায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের শমশেরনগর রেলওয়ে স্টেশন অতিক্রম করে সিলেট যাওয়ার পথে চক কবিরাজি এলাকায় পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেনের পাওয়ার কারে আগুন লাগে। এ সময় চালক ট্রেনটি থামিয়ে দেন।

দ্রুত আগুন সামনের দিকের আরও দুটি বগিতে ছড়িয়ে পড়ে। চক করিবরাজি গ্রামের মানুষ নিজেদের উদ্যোগে আগুন নেভানোর চেষ্টা শুরু করে। পরে ফায়ার সার্ভিসের চারটি দল এসে আগুন নেভানোর কাজে যোগ দেয়। ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় লোকজনের চেষ্টায় দুই ঘণ্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এতে পাওয়ার কার ও দুটি বগি পুড়ে যায়। আগুন নেভানোর এক ফাঁকে গ্রামের লোকজন খুন্তি, শাবল ও হাতুড়ি ব্যবহার করে আগুনকবলিত তিনটি বগিকে মূল ট্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন করেন। পাশাপাশি ট্রেনের যাত্রীদের নিরাপদে নামিয়ে নিতে সহায়তা করেন।

এ ঘটনায় রেলওয়ে দুটি তদন্ত কমিটি ও জেলা প্রশাসন একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে।

জেলা প্রশাসনের গঠন করা তদন্ত কমিটিতে সদস্য হিসেবে আছেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিফাত উদ্দীন।অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে সাত সদস্যের একটি তদন্ত দল গঠন করেন জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান। আগামী সাত দিনের মধ্যে তারা তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেবেন। খুব সম্ভব সোমবার বা মঙ্গলবার এ দল সরেজমিনে তদন্ত শুরু করবে।

শেয়ার করুন