ছাত্রলীগের মেয়েদের কাছে শুনি ‘অমুক ভাইকে মেনটেইন করি’: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ছাত্রলীগের মেয়েদের কাছে বেশি শুনি, আমি অমুক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে মেনটেইন (সম্পর্ক রাখা) করি। ইডেন গার্লস কলেজের ছাত্রীদের কাছে এটা বেশি শুনি। এটা খুব সাহসের সঙ্গে উচ্চারণ করে। আজ শুক্রবার আওয়ামী লীগের ২২তম জাতীয় কাউন্সিল উপলক্ষে গঠিত দপ্তর উপ-কমিটির প্রস্তুতি সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

দলটির সভাপতি শেখ হাসিনার রাজধানীর ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে কাদের বলেন, তোমরা মেনটেইন করবা আওয়ামী লীগকে, শেখ হাসিনাকে। আমাদের নেতা বঙ্গবন্ধু। তার আদর্শ আর শেখ হাসিনার কর্মী আমরা। এর বাইরে কিসের মেনটেইন? এটা কি ঘর-বাড়ি মেইনটেন হচ্ছে নাকি? এসব বদ অভ্যাস … স্লোগানও দেয়। এসব বিষয় সুশৃঙ্খল করতে হবে। দপ্তরেরও দায়িত্ব আছে।

universel cardiac hospital

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা নাম-পরিচয় উল্লেখ করে সালাম দেয়, যা অতীতে দেখেননি উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, নাম বলতেই হবে! আমি এ জন্য নিচের দিকে তাকিয়ে হাঁটি। ডানে কে? বায়ে কে? এটা আর দেখি না। সালাম দিচ্ছে নাম ধরে ধরে। এ কি অনুশীলন। হলের নাম, অমুক ভাইয়ের নাম।

ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের ধানমন্ডিতে আসার সমালোচনা করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ছাত্রলীগ ছাত্রসংগঠন। এদের সকাল নেই, দুপুর নেই, বিকেল নেই এসে এখানে লাইন ধরে। আমি আসলে রুমে ঢুকতে রীতিমতো যুদ্ধ করতে হয়। এটা একটা লড়াই। এটা এ বয়সে সম্ভব না। তারপরও কষ্ট করে আসি।

আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে ব্যানার, ফেস্টুন ঝোলানো নিয়ে তিনি বলেন, কোথায় থেকে কে- চিনি না, জানি না, রাস্তার টোকাই, সেও এসে নেতা হয়ে যায়। নিজের ছবি, ব্যানার, পোস্টার, বিলবোর্ড লাগাচ্ছে। এরপরে তো আওয়ামী লীগ অফিসের সামনে আকাশ দেখা যাবে না। সম্মেলন যত ঘনিয়ে আসছে, আকাশ দেখা যাবে না মনে হয়।

শেয়ার করুন