থাই সীমান্তে মিয়ানমার জান্তা সরকারের অফিস পুড়িয়ে দিয়েছে প্রতিরোধ গোষ্ঠী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মিয়ানমারের প্রতিরোধ গোষ্ঠী

থাই সীমান্তের পায়থনজুতে ৩টি সরকারি অফিস পুড়িয়ে দেওয়ার কথা জানিয়েছে দিয়েছে কারেন রাজ্যের একটি প্রতিরোধ গোষ্ঠী। সোমবার পায়থনজু গেরিলা ফোর্স (পিজিএফ) বলেছে, তারা সীমান্ত শহরে সাধারণ প্রশাসন বিভাগ এবং পৌরসভার অফিসে হামলা চালিয়েছে। খবর দ্য ইরাবতীর।

পিজিএফের একজন মুখপাত্র বলেছেন, সরকারের কর্মীরা জানে যে সামরিক কাউন্সিলের জন্য কাজ করা কাউকে কেউ রক্ষা করতে পারে না। আমরা সকল কর্মীদের আইন অমান্য আন্দোলনে যোগদানের জন্য আহ্বান জানাই।

universel cardiac hospital

পিজিএফ জান্তা তথ্যদাতাদের বিপ্লবী আন্দোলনের ওপর গুপ্তচরবৃত্তি বন্ধ করার জন্য সতর্ক করেছিল।

গুলির শব্দ শুনার কথা জানিয়েছেন সেখানকার বাসিন্দারা। পিজিএফ বলেছে, তারা তাদের সমন্বিত অভিযানের সময় গুলি চালায় তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। জান্তা সৈন্যরা আসার আগেই তারা পিছু হটেছে।

অভিযানের পর, শাসক বিরোধী লায়ন ব্যাটালিয়ন কমান্ডো এবং তার সহযোগীরা লাইট ইনফ্যান্ট্রি ডিভিশন ৪৪ থেকে জান্তা রিইনফোর্সমেন্টের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় যা কায়াইনসেইকগি থেকে পায়থনজু পর্যন্ত যায়। লায়ন ব্যাটালিয়নের মতে অন্তত তিন জান্তা সৈন্য নিহত এবং পাঁচজন আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত এই সংঘর্ষ চলে।

শেয়ার করুন