জাবি ছাত্রী হেনস্তাকারী পুলিশ সদস্যের বিচার দাবিতে মানববন্ধন

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রীকে হেনস্তার প্রতিবাদে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যের বিচার দাবিতে মানববন্ধন হয়েছে। সোমবার (১২ জুন) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের পাদদেশে এ মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী।

মানববন্ধনে ইংরেজি বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী মো. সাদ বলেন, যে পুলিশ সদস্য এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন, তিনি যেন আর এমন ঘটনা না ঘটাতে পারেন, সে ব্যবস্থা নিতে হবে। তাকে শাস্তি দিতে হবে। আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।’

universel cardiac hospital

ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের ৫০তম ব্যাচের শিক্ষার্থী বেদত্রয়ী গোস্বামী পৃথা বলেন, ‘আমরা এ ঘটনার সঠিক বিচার চাই। যদি বিচার না হয় তাহলে এ ধরনের অপকর্মকারীদের জন্য এটি একটি উদাহরণ হয়ে থাকবে। তারা এ ধরনের অপকর্ম করার আরও সাহস পাবে।’

মানববন্ধন শেষে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দেন শিক্ষার্থীরা। স্মারকলিপিতে থাকা দাবিগুলো হলো- ঘটনা পরবর্তী আইনি পদক্ষেপের যথাযথ তদারকি, ঘটনার হালনাগাদ তথ্য নিয়মিত শিক্ষার্থীদের জানানো, ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের প্রবেশ ও চলাচল নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ গ্রহণ, ক্যাম্পাসে মূল সড়কগুলোতে সিসিটিভি স্থাপন ও প্রয়োজনীয় সংখ্যক নিরাপত্তা কর্মী নিয়োজিত করা, অন্ধকারাচ্ছন্ন সড়কগুলোতে রাতে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা এবং পর্যাপ্ত যানবাহন নিশ্চিত করে ক্যাম্পাসে যাতায়াত নিরাপদ করা।

উপাচার্য অধ্যাপক নূরুল আলম স্মারকলিপি গ্রহণ করে যথাযথ বিচারের আশ্বাস দেন। এ সময় তিনি শিক্ষার্থীদের বলেন, রাস্তাগুলোয় পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করা হবে। অভিযুক্ত ব্যক্তির বিচার নিশ্চিত করতে যথাযথ চেষ্টা করবো।

রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানিক্যাল গার্ডেন সংলগ্ন সড়কে এক ছাত্রীকে হেনস্তার দায়ে পুলিশ সদস্য মেহমুদ হারুনকে আটক করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এ সময় তার কাছ থেকে ওয়াকিটকি ও হ্যান্ডকাফ জব্দ করা হয়। আজ ওই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

শেয়ার করুন