তৈলাক্ত খাবার পরিহারের আহ্বান জানালেন গণপূর্তমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বলেছেন, পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশের গড় আয়ু বাড়াতে হবে। সেটা করতে হলে নিরাপদ খাদ্য খেতে হবে। তৈলাক্ত খাবার পরিহার করার চেষ্টা করতে হবে।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের সেইফ ফুড কার্নিভালের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

universel cardiac hospital

মোকতাদির চৌধুরী বলেন, আমার শ্বশুরবাড়ি পুরান ঢাকায়। তারা যে কত রকমের খাবার খায়। আমি নিশ্চিত একটা খাবারও নিরাপদ নয়, সব অনিরাপদ। সেখান থেকে তোমরা যারা যুবক তাদের বেরিয়ে আসা উচিত। একসময় এদেশে গড় আয়ু ছিল ৪১ বছরের মতো, জননেত্রী শেখ হাসিনার বদৌলতে এখন দেশের মানুষের গড় আয়ু ৭২-৭৩ বছরে পৌঁছেছে। এটা ধরে রাখতে হবে এবং এগিয়ে নিতে হবে।

গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, আমরা এখন স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশের অধিকারী। এই দেশটা আমাদের ছিল না। ডাকাতেরা, লুটেরা জন্মলগ্ন থেকে দেশটাকে দখল করে রেখেছিল। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৪৮ সাল থেকে নয়, ১৯৪৬ সাল থেকেই ভাষা সংগ্রামের সঙ্গে একাত্ম হয়ে কাজ করছিলেন। তিনি বুঝতে পারেন পাকিস্তান না, বাঙালিদের নিজস্ব রাষ্ট্র দরকার। সেই নিজস্ব রাষ্ট্র গঠন করার জন্যে তিনি সমগ্র জীবনকে বাজিয়ে রেখেছিলেন। তিনি সবাইকে এক পাল্লায় উঠিয়ে স্বাধীন বাংলাদেশের ডাক দিয়েছিলেন। আমরা যারা সৌভাগ্যবান, তারা সেই ডাকে সাড়া দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলাম।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল কাইউম সরকারের সভাপতিত্বে সংসদ সদস্য চিত্রনায়ক ফেরদৌস আহমেদ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন