প্রখ্যাত ইরানি পরিচালককে আট বছরের কারাদণ্ড, চাবুক মারার নির্দেশ!

বিনোদন ডেস্ক

প্রখ্যাত ইরানি পরিচালক মোহাম্মদ রাসুলফকে আট বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির আদালত। একই সঙ্গে নির্মাতাকে চাবুক মারা ও তার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশও দিয়েছেন আদালত। গতকাল নির্মাতার আইনজীবী বাবাক পাকনিয়া এক্সে এক পোস্টে এ তথ্য জানান। রাসুলফের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তার কর্মকাণ্ড দেশটির নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে উঠেছিল। খবর এএফপির।

৫০ বছর বয়সী রাসুলফকে ইরানের এ সময়ের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নির্মাতা মনে করা হয়। তার নতুন সিনেমা ‘দ্য সিড অব দ্য স্যাক্রেড ফিগ’ এবারের কান উৎসবের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে জায়গা করে নিয়েছে।

universel cardiac hospital

গত ৩০ এপ্রিল পাকনিয়া বলেছিলেন, ‘দ্য সিড অব দ্য স্যাক্রেড ফিগ’ সিনেমা নির্মাণের সঙ্গে যুক্ত কলাকুশলীদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সমন পাঠায় ইরানি কর্তৃপক্ষ। কান উৎসব থেকে সিনেমাটি প্রত্যাহার করে নিতে তাদের ওপর চাপ সৃষ্টি করা হয় বলেও এই আইনজীবী জানিয়েছিলেন।

পাকনিয়া আরও জানান, গত কয়েক সপ্তাহে সিনেমার বেশ কিছু কলাকুশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় এবং অভিনয়শিল্পীদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। তবে ঠিক কতজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে, এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য পাওয়া যায়নি।

২০২০ সালে ‘দেয়ার ইজ নো এভিল’ সিনেমার জন্য বার্লিন উৎসবের সর্বোচ্চ পুরস্কার স্বর্ণভালুক জেতেন রাসুলফ। ২০২২ সালে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়, পরে ইরানে বিক্ষোভ শুরু হলে সে বছরের সেপ্টেম্বর মাসে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়।

রাসুলফ এবার ইরান থেকে কান উৎসবে যোগ দিতে পারবেন কি না, সে বিষয়ে তার আইনজীবী আগেই সংশয় প্রকাশ করেছিলেন।

জানা গেছে, ‘দ্য সিড অব দ্য স্যাক্রেড ফিগ’ সিনেমায় ইরানের বিচারব্যবস্থার চিত্র তুলে ধরেছেন রাসুলফ।
১৪ মে দক্ষিণ ফ্রান্সে শুরু হবে কান চলচ্চিত্র উৎসব, চলবে ২৫ মে পর্যন্ত।

শেয়ার করুন