আইরিশদের উড়িয়ে ভারতের বিশ্বকাপ মিশন শুরু

ভারত টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেবারিট। তাদের শুরুটাও হলো ফেবারিটের মতোই। রোহিত শর্মার দলের সামনে দাঁড়াতেই পারলো না আয়ারল্যান্ড।

নিউইয়র্কে আইরিশদের ৮ উইকেট আর ৪৬ বল হাতে রেখে হারিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছে ভারত। তাদের পরের ম্যাচ ৯ জুন একই ভেন্যুতে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে।

universel cardiac hospital

বোলাররাই অর্ধেক কাজ সেরে রেখেছিলেন। ভারতের সামনে লক্ষ্য ছিল মাত্র ৯৭ রানের। বিরাট কোহলি ৫ বলে মাত্র ১ রান করে থার্ডম্যানে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেও ঘাবড়াতে হয়নি ভারতকে।

রোহিত শর্মা আর রিশাভ পান্ত দলকে জয়ের পথ গড়ে দেন। কঠিন পিচে ৩৬ বলে ফিফটি হাঁকান রোহিত। ভারত যখন জয় থেকে মাত্র ২১ রান দূরে, কাঁধে টান লাগে রোহিতের। ৩৭ বলে ৪ বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় ৫২ রান করে রিটায়ার্ড হার্ট হিসেবে মাঠ থেকে উঠে যান ভারতীয় অধিনায়ক।

এরপর সূর্যকুমার বড় শট খেলতে গিয়ে আকাশে বল তুলে দেন। ৪ বলে ফেরেন ২ করে। তবে পান্ত আর ভুল করেননি। শিভাম দুবেকে নিয়ে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন উইকেটরক্ষক এই ব্যাটার। ছক্কা মেরে ম্যাচ শেষ করা পান্ত ২৬ বলে অপরাজিত থাকেন ৩৬ রানে, দুবে সঙ্গে ছিলেন ২ রানে।

এর আগে দুই পেসার অর্শদীপ সিং ও হার্দিক পান্ডিয়ার তোপের মুখে মাথা তুলে দাঁড়াতেই পারেনি আয়ারল্যান্ড। প্রথম ম্যাচেই আইরিশদের ১৬ ওভারে মাত্র ৯৬ রানে গুটিয়ে দিয়েছে রোহিত শর্মার দল।

আজ বুধবার নাসাউ কাউন্টি ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে একের পর উইকেট হারাতেই থাকে আয়ারল্যান্ড। দলীয় ৯ রানে ২ উইকেট হারানোর পর কিছুটা বিরতি দিয়ে ২৮ রানে হয় তৃতীয় উইকেটের পতন। এরপর আসা-যাওয়ার মিছিলে যোগ হন আরও ৫ ব্যাটার।

৫০ রানেই ৮ উইকেট হারায় আয়ারল্যান্ড। তখন মনে হয়েছিল চলতি বিশ্বকাপের সর্বনিম্ন উগান্ডার করা ৫৮ রানও পার করতে পারবে না আইরিশরা।

তবে নবম উইকেটে ১৮ বলে ২৭ রানের জুটির সুবাদে সেটি আর হয়নি। অর্থাৎ উগান্ডার মতো লজ্জায় পড়তে হয়নি আয়ারল্যান্ডকে। মান বাঁচানো এই জুটিটি করেছেন জস লিটল ও গ্রেরেথ ডেলানি।

১৩ বলে ১৪ রান করে জাসপ্রিত বুমরাহের বলে লিটল বোল্ড হন। আইরিশদের ইনিংসের সবচেয়ে বড় জুটিটি ভেঙে যায়। এরপর একাই লড়াই করেন ডেলানি। ১৫ বলে ২৫ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

ভারতের হয়ে ৩ উইকেট শিকার করেন হার্দিক পান্ডিয়া। ২টি করে উইকেট নেন অর্শদীপ সিং ও জাসপ্রিত বুমরাহ। একটি করে উইকেট পান মোহাম্মদ সিরাজ ও অক্ষর প্যাটেল।

শেয়ার করুন