বিশ্বে প্রায় ৪০ কোটি শিশু বাড়িতেই শারীরিক বা মানসিক নির্যাতনের শিকার: ইউনিসেফ

মত ও পথ ডেস্ক

শিক্ষার্থী

বিশ্বে পাঁচ বছরের কম বয়সী প্রায় ৪০ কোটি শিশুকে বাড়িতে নিয়ন্ত্রণে রাখতে মারধর ও অপমানের মতো শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়। জাতিসংঘের শিশুবিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ গতকাল সোমবার বলেছে, এই সংখ্যাটি বিশ্বব্যাপী পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের ৬০ শতাংশ। খবর এএফপির।

ইউনিসেফ ২০১০ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত ১০০টি দেশের তথ্য সংগ্রহ করে দেখেছে, ওই শিশুদের ঘরে নিয়ন্ত্রণে রাখতে ‘শারীরিক শাস্তি’ ও ‘মানসিক পীড়ন’ দুটোই করা হয়।

universel cardiac hospital

ইউনিসেফের কাছে মানসিক পীড়নের মধ্যে তাদের ‘বোকা’ বা ‘অলস’ বলার মতো শব্দ অন্তর্ভুক্ত। আর শারীরিক নির্যাতনের মধ্যে শিশুকে ঝাঁকুনি দেওয়া, আঘাত করা, থাপ্পড় দেওয়া বা আঘাত ছাড়াই শারীরিক ব্যথা বা অস্বস্তি সৃষ্টি করার উদ্দেশ্যে যেকোনো কাজ অন্তর্ভুক্ত।

ইউনিসেফ বলছে, এই প্রায় ৪০ কোটি শিশুর মধ্যে প্রায় ৩৩ কোটি শিশু শারীরিক নিপীড়নের শিকার হয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে অনেক দেশ শিশুদের শারীরিক শাস্তি নিষিদ্ধ করলেও বিশ্বের পাঁচ বছরের কম বয়সী প্রায় ৫০ কোটি শিশু এই ধরনের অনুশীলনের বিরুদ্ধে আইনগতভাবে সুরক্ষিত নয়।

ইউনিসেফের তথ্যমতে, প্রতি চারজনের মধ্যে একাধিক মা বা দায়ী প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিরা বিশ্বাস করেন, তাদের সন্তানকে সঠিকভাবে শিক্ষিত করার জন্য শারীরিক শাস্তির প্রয়োজন আছে।

শেয়ার করুন