মিরনজিল্লা কলোনির হরিজন সম্প্রদায়ের বাসিন্দাদের আপাতত উচ্ছেদ নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক

হাইকোর্ট
ফাইল ছবি

পুরান ঢাকার আগাসাদেক সড়কের পাশের মিরনজিল্লা সুইপার কলোনিতে থাকা হরিজন সম্প্রদায়ের বাসিন্দাদের উচ্ছেদপ্রক্রিয়ার ওপর ৩০ দিনের স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি মো. আতাবুল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ বৃহস্পতিবার রুলসহ এ আদেশ দেন। আগামী ২১ জুলাই এ বিষয়ে পরবর্তী দিন রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট আইনজীবীরা বলছেন, আদালত স্থিতাবস্থা দেওয়ায় আপাতত হরিজনদের উচ্ছেদ করা যাবে না। পুনর্বাসন বা তাদের জন্য অন্যত্র জায়গার ব্যবস্থা করার পরই তাদেরকে এখান থেকে চলে যেতে হবে।

universel cardiac hospital

‘প্রতিবাদ করে উচ্ছেদ ঠেকাল শিক্ষার্থীরা, আতঙ্কে বাসিন্দারা’ শিরোনামে গতকাল জাতীয় একটি দৈনিকে প্রতিবেদন ছাপা হয়। প্রতিবেদনটি যুক্ত করে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের তিন আইনজীবী আজ রিট করেন।

তিন আইনজীবী হলেন মনোজ কুমার ভৌমিক, উৎপল বিশ্বাস ও আইনুন্নাহার সিদ্দিকা। আদালতে রিটের পক্ষে তারা শুনানিতে অংশ নেন। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সমরেন্দ্র নাথ বিশ্বাস। সঙ্গে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আবুল কালাম খান।

৩০ দিনের স্থিতাবস্থা দেওয়া হয়েছে জানিয়ে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সমরেন্দ্র নাথ বিশ্বাস বলেন, এ সময়ের মধ্যে হরিজন সম্প্রদায়ের বাসিন্দাদের জন্য ফাঁকা জায়গার ব্যবস্থা করতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনকে বলা হয়েছে। জায়গার ব্যবস্থা হলে তাদের (হরিজন সম্প্রদায়) সেখানে চলে যেতে হবে। এরপর আধুনিক কাঁচাবাজার নির্মাণের কার্যক্রম পরিচালনা করা যাবে।

শেয়ার করুন