পেনশন নিয়ে সরকারি ব্যাখ্যা ভুল দাবি করে শিক্ষকেরা বলছেন, আন্দোলন চলবে

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ফাইল ছবি

সর্বজনীন পেনশনের প্রত্যয় কর্মসূচির প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহারের দাবিতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কর্মবিরতি চলবে। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন বলছে, কর্মসূচিটি নিয়ে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ যে ব্যাখ্যা দিচ্ছে, তা ভুল। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের অনির্দিষ্টকালের সর্বাত্মক কর্মবিরতি ১ জুলাই শুরু হয়। ওই দিনই প্রত্যয় কর্মসূচি আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে।

শিক্ষকদের কর্মবিরতির দ্বিতীয় দিনে মঙ্গলবার অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, এই আন্দোলন অযৌক্তিক। তিনি এ নিয়ে বিস্তারিত কিছু বলেননি। ওদিকে মঙ্গলবারই জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ কর্মসূচিটির বিভিন্ন বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছে।

universel cardiac hospital

‘প্রত্যয় সম্পর্কে কিছু বিষয়ে অধিকতর স্পষ্টীকরণ’ শিরোনামের ব্যাখ্যায় কর্তৃপক্ষ বলেছে, ২০২৪ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত যেসব শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী চাকরিরত, তারা আগের মতোই পেনশন-সুবিধা পাবেন। নতুনদের ক্ষেত্রে প্রত্যয় চালু হবে। নতুন কর্মসূচিতে আনুতোষিক, অবসরের বয়স ইত্যাদি বিষয়ে ব্যাখ্যা তুলে ধরে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ।

বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আখতারুল ইসলাম বলেন, ‘পত্রিকায় পড়লাম এবং টেলিভিশনেও দেখলাম, পেনশন কর্তৃপক্ষের একজন সদস্য কথা বলছেন। প্রত্যয় নিয়ে ভুল ব্যাখ্যা দেওয়া হচ্ছে।’ তিনি আরও বলেন, তাদের দাবি না মানা পর্যন্ত কর্মবিরতি চলবে। বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনার জন্য বুধবার ফেডারেশনের একটি বৈঠক আয়োজন হতে পারে।

শেয়ার করুন