শরাফত হোসেনের একগুচ্ছ কবিতা

সীমানা
আকাশে গুচ্ছ মেঘের দল আনমনে পেরিয়ে যায় সীমারেখা
নিজের অজান্তেই শালিক পাখিটি ওপার ঘুরে আসে।

তোমাদের সীমানা প্রাচীর হয়ে বৃষ্টির জল
নেমে আসে এ তল্লাটে—অনায়াসে
ঝড়ো হাওয়ার সাথে শুকনো পাতার দল।
সাগরের স্বচ্ছ জলে মুখ লুকাতে হাপিয়ে উঠি
আলিঙ্গনের দূরত্ব রাইফেলের নল
এপারে আসতে মানা, ওপারে যেতে
এই পথ আমার নয়; ওই পথ তোমার
হৃদয়ে রক্ত ঝরে, শীতল হয়—
এপারে জল ছুঁয়ে দিলে তোমার উঞ্চতা অনুভব করি
বাতাসে সুগন্ধী
এপারে আসতে মানা, ওপারে যেতে
অন্ধকার ডুবে থাকে তোমার চুলে।

অখণ্ড
এক.
শৈশবের শ্লেটে সাজিয়ে রাখি সারি সারি দুঃখ
চায়ের ধোঁয়ায় শিশির জমে কাচঘেরা পাতাগাছে
চোরাস্বপ্নেরা ডুবে থাকে গানে-কবিতায়

দুই.
অবিরত ঝরে পড়া বৃষ্টির জলে জেনেছি
দুঃখ বলে কিছু নেই; আছে হাহাকার
অতৃপ্তি—না পাওয়া!

তিন.
হলুদ শার্টে তোমার আকাশ ফিকে হয়ে আসে
কালো চুলে ওপরে ওঠার সিঁড়ি
একটু হাসো—তোমার নিঃশ্বাসে গেয়ে উঠবে পাখি
বিস্ময়ভরা দৃষ্টিতে জল খুঁজে পাবে আশ্রয়

যেমন আমি—ভরদুপুরে, বৃষ্টিতে, রোদ্দুরে
এমনকি অন্ধকারে খুঁজে বেড়ায় শব্দমালা
তোমার নূপুরে, গলার লকেট, কানের দুলে—
অথবা দীর্ঘশ্বাসে।

আলোর দিকে
ঋষিপাড়ায় নেমেছে ঘুম।
জেগে থাকে শুধু রাত।
তিতাসের ঢেউ স্বপ্ন আঁকে কিশোরীর নীল চোখে
আহা জলের নগর, শরীর ভরা বিষের কাঁটা!
কেন তবে এই রাতে হানা দিলি মাঝির ডেরায়
বুনোহাঁস ভেসে যায়, ঢেউয়ে-ঢেউয়ে
কলমিলতার ঘ্রাণে দুলে ওঠে ক্লান্ত ডানা তার।

তিতাসের এলো চুলে বিলি কাটে সোনালি সকাল।

শহরে উঠেছে নতুন চাঁদ

তোমার শহরে আজ উঠছে নতুন চাঁদ তারাদের গালে
পালাতে গিয়ে আটকে যাই মাছের মতোন জালে।
তুমি আছ, তুমি নেই
মায়বী শহরে তুমিই একখণ্ড আশ্রয়ভূমি।
হাতে শীতল পরশ, ওষ্ঠে বরফজল
হুট করে বেরিয়ে যাও, ছায়ার মতো মায়া
এ শহর মায়াবী অতি, বার্তা নেই কোনো প্রেমহীন।
তোমার শহরের অলি-গলি চিনতেই বারো বছর…

দুপুরের রোদ কাশফুল আর মঠ ও মন্দির
অলি-গলি ঘুরে ভিজেছে শরীর
নরম রোদের মায়া কাটেনি আজও
মৃদু বাতাসের এমন সহজ আলিঙ্গন
মায়বী শহরে তুমি একখণ্ড ছায়াসুনিবিড় আশ্রয় আমার!

ফলন

স্মৃতিরা ছবি হয়ে ভাসে; ছবি কেবলই স্মৃতি।
পাতাদের মজ্জাগত দোষ, কথা বলে বাতাসে
এই গরমে নাড়িস না কেউ জল
ভাতের হাড়ি ভাঙিস না কেউ।
উঠোন ভরতি মানুষ ছিল—হারিয়ে গেছে
সোনালি দিন মিলিয়ে গেল জলের দেশে
নাড়িস না কেউ জল।

মাটির চুলা একই আছে; ধুপধোঁয়া মন
ধানের ডগায় বসছে শিশির; শর্ষে ফুলে মৌ।

পরিচিতি: শরাফত হোসেন মূলত কবি। জন্ম ১ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। বাবা জয়দুল হোসেন, মা হাসনেয়ারা বেগম। স্কুল জীবন থেকেই নানা সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত। লেখালেখির শুরু ওই সময়েই। একাধিক জাতীয় দৈনিকের বিশেষ সংখ্যা সম্পাদনার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ২০০৭ সাল থেকে ‘সাহিত্য একাডেমি পত্রিকা’র নির্বাহী সম্পাদক। সম্পাদনা করছেন ‘বুক রিভিউ’।
বর্তমানে কাজ করছেন সংবাদ মাধ্যমে। পড়াশুনা ব্যবসায় প্রশাসনে। জাতীয় কবিতা পরিষদ, পেন বাংলাদেশ, জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনালসহ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক একাধিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতির প্রসারে কাজ করে আনন্দ পান।
প্রকাশিত কবিতার বই ‘ঘাসফুল তোমার সাথে’ এবং ‘ফিরে আসি কাচের শহরে’।

অলঙ্করণ: মোবাশ্বির আলম মজুদারের ফেসবুক থেকে

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here