৩০৮টি প্রেমই যার ব্যর্থ!

বিনোদন ডেস্ক

নায়ক সঞ্জয় দত্ত বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির এক বর্ণময় চরিত্র । তার পুরো ক্যারিয়ারটাই বিতর্কিত। সম্প্রতি সঞ্জয়ের জীবনের নানা ঘটনা নিয়ে বায়োপিক ‘সঞ্জু’ তৈরি করেছেন পরিচালক রাজকুমার হিরানি। সে ছবি নিয়েও তৈরি হয়েছে বহু বিতর্ক। প্রশ্ন উঠেছে, সঞ্জয়ের জীবনের সব সত্যি ঘটনা কি আদৌ দেখাতে পেরেছেন রাজকুমার?

অবশ্য এ ব্যাপারে নায়ক সঞ্জয় দত্তের দাবি, বায়োপিক নির্মাণের আগে তার জীবনের সব ঘটনাই তিনি পরিচালক হিরানিকে বলেছিলেন। সেগুলোর মধ্যে কোনটা দেখানো হবে আর কোনটা দেখানো হবে না, সেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পরিচালক হিরানি।

সঞ্জয়ের বায়োপিক ‘সঞ্জু’তে সঞ্জয়ের ভূমিকায় নজর কেড়েছেন অভিনেতা রণবীর কাপুর। এই ছবিতে আর যা-ই থাকুক না কেন, সঞ্জয়ের জীবনের ৩০৮টি ব্যর্থ প্রেমের সম্পর্কের কথা স্পষ্ট ভাবে বলা হয়েছে। ৩০৮টি ব্যর্থ সম্পর্কের পরই নাকি সঞ্জয়ের জীবনে এসেছিলেন তার বর্তমান স্ত্রী অভিনেত্রী মান্যতা।

রাজকুমার হিরানির ‘সঞ্জু’ছবিতে সঞ্জয়ের স্ত্রী মান্যতার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দিয়া মির্জা। সঞ্জয়-মান্যতার প্রেমের গল্প ছবিতে নেই। কিন্তু ছবির একটি দৃশ্যে দেখা গেছে, স্ত্রী মান্যতার সামনেই সঞ্জয় স্বীকার করেছেন, কমপক্ষে ৩০৮ জন নারীর সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল!

বলিউড সূত্রের খবর, সঞ্জয়ের সঙ্গে যখন মান্যতার প্রথম দেখা হয়, তখন মান্যতার নাম ছিল দিলনওয়াজ শেখ। সঞ্জয় সে সময় অভিনেত্রী নাদিয়া দুরানির সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করছেন। সে সময় ইন্ডাস্ট্রিতে ক্যারিয়ার তৈরির চেষ্টা করছিলেন দিলনওয়াজ। পরিচালক প্রকাশ ঝা তার নাম বদলে রাখেন মান্যতা। প্রকাশের ‘গঙ্গাজল’ছবিতে অভিনয় করেন নবাগতা মান্যতা।

আর তখনই নাকি সঞ্জয়ের সঙ্গে আলাপ হয় মান্যতার। প্রথম দেখার পরই সঞ্জয়ের প্রেমে পড়েন তিনি। তার খেয়াল রাখতে শুরু করেন মান্যতা। সঞ্জয়ের পছন্দের খাবার তৈরি করে প্রায়ই বাড়ি পৌঁছে দিতেন তিনি। এর পরই ধীরে ধীরে গড়ে ওঠে তাঁদের সম্পর্ক।

২০০৮ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি অভিনেত্রী মান্যতাকে বিয়ে করেন সঞ্জয়। ২০১০ সালে জন্ম হয় তাদের যমজ সন্তান শাহরাহান ও ইকরার। তবে ৩০৮টি ব্যর্থ সম্পর্ক নিয়ে কখনও প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি সঞ্জয়। বরং তিনি বলেছিলেন, সবটাই বলেছি, কতটা দেখাবেন সে সিদ্ধান্ত পরিচালকের।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here