দুই দেশকে একত্রিত করতে মালিককে বিয়ে করিনি : সানিয়া মির্জা

ক্রীড়া ডেস্ক

ভারতের টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা ২০১০ সালে যখন পাকিস্তানী ক্রিকেটার শোয়েব মালিককে বিয়ে করেন তখন অনেক বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু এ জুটি তাতে কোন প্রকার কান দেননি এবং দীর্ঘ আট বছর যাবত এক সাথে সুখেই আছেন এ জুটি। আগামী অক্টোবরে তাদের প্রথম সন্তান ভুমিষ্ট হতে যাচ্ছে। যে কারণে বর্তমানে খেলার বাইরে আছেন সানিয়া। যাই হোক সম্প্রতি তিনি মুখ খুলেছেন নিজের অন্ত:সত্বা হওয়া, বিয়ে নিয়ে এবং দুই দেশকে একত্রিত করতে পাকিস্তানী ক্রিকেটারকে বিয়ে করনেনি বলে জানিয়েছেন।

বিয়ের পর থেকে উভয় খেলোয়াড়রই তাদের নিজ নিজ দেশের প্রতিনিধিত্ব করে আসছেন। গত বছর ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা জয়ে পাকিস্তান দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন মালিক। পক্ষান্তরে ভারতকে ছয়টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম দ্বৈতের শিরোপা এনে দিয়েছেন সানিয়া। হিন্দুস্থান টাইমসের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে সানিয়া বলেন, ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নের লক্ষ্যে তিনি শোয়েব মালিককে বিয়ে করেননি। তবে তিনি পাকিস্তানের কাছ থেকে ভালবাসা পাওয়ার কথাও স্বীকার করেন এবং ভক্তরা তাকে ‘ভাবী’ বলে সম্বোধন করেন।

তিনি বলেন, ‘এখানে অনেকেরই ধারণা ছিল যে, দুই দেশকে একত্রিত করতে আমি এবং শোয়েব বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছি। এটা সত্যি নয় । যখনই আমি পাকিস্তানে যাই তখনই আমি শ্বশুর-শ্বাশুরির সঙ্গে দেখা করি। সেখানকার জনগণের ভালবাসায় আমি অভিভূত। পুরো দেশের জনগণ আমাকে ‘ভাবী’ বলে সম্বোধন করেন এবং যথেষ্ট সম্মান করেন।

তাদের সন্তান ভারত না পাকিস্তানের নাগরিক হবে-বিতর্কের বিষয়ে সানিয়া বলেন, তিনি এবং শোয়েব এ ধরনের মন্তব্যে কান দেবেন না। সানিয়া আরো বলেন, ‘তকমা(ট্যাগ) বহু পরিচিত হওয়ার একটি অংশ। আমি খেলি আমার দেশ, আমার পরিবার এবং আমার নিজের জন্য এবং আমার স্বামীও খেলেন তার দেশ, পরিবার ও নিজের জন্য। আমাদের দায়িত্ব কর্তব্য সম্পর্কে আমরা ওয়াকেফহাল। তবে এ ধরনের তকমাকে আমি গুরুত্ব দেই না। এ জন্য হয়তোবা ভাল একটা শিরোনাম হওয়া যায়। তবে দেশের মাটিতে এর কোন মানে হয় না।’

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here