প্রিন্স বাজার ও জিমার্টকে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা

মহানগর ডেস্ক

প্রিন্স বাজার
ফাইল ছবি

কৃষি বিপণন অধিদফতরের নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে ১ টাকা বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় চেইন সুপার শপ প্রিন্স বাজার ও জিমার্টকে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

রাজধানীর মিরপুর-১ নম্বর গোলচত্বর এলাকায় আজ শনিবার রমজানের বিশেষ এ অভিযান চালিয়ে প্রতিষ্ঠান দুটিকে ২০ হাজার টাকা করে মোট ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এ ছাড়া সিটি কর্পোরেশন নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি দামে গরুর মাংস বিক্রি ও মূল্য তালিকা না থাকায় মিরপুর-১ এর চার মাংসের দোকানকে জরিমানা করা হয়।

প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে মূল্য তালিকা না থাকায় আনোয়ারের মাংসের দোকানকে ১০ হাজার টাকা, সিটি কর্পোরেশনের নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি দামে গরুর মাংস বিক্রির অপরাধে খোকনের মাংসের দোকানকে ৫ টাকা, ভট্টর মাংসের দোকানকে ৫ হাজার টাকা, মায়ের দোয়া মাংসের দোকানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযান পরিচালনা করেন অধিদফতরের ঢাকা জেলা অফিসের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মণ্ডল। বাজার তদারকি কাজে সার্বিক সহযোগিতা করেন শাহ আলী থানা পুলিশ সদস্যরা।

সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মণ্ডল বলেন, ‘রাজধানীর বাজারে কৃষি পণ্যের মূল্য নির্ধারণ করে দেয় কৃষি বিপণন অধিদফতর। রাজধানীতে দেশি পেঁয়াজের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ৩০ টাকা এবং আমদানি পেঁয়াজ ২৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু প্রিন্স বাজার আমদানি পেঁয়াজ বিক্রি করছে ২৪ টাকা। অর্থাৎ এক টাকা বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করছে। যা ভোক্তা আইন পরিপন্থি। এ অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া দেশি পেঁয়াজ ৩০ টাকা নির্ধারণ থাকলেও জিমার্ট বিক্রি করছে ৩২ টাকা। এ অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।’

ঢাকা সিটিতে কোন চেইন শপ এর আউটলেটে দেশি পেঁয়াজ ৩০ টাকার বেশি নেয়া হলে ভোক্তা অধিদফতরে জানাতে বলা হয়েছে। অধিদফতর থেকে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান এ সরকারি কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, ‘সিটি কর্পোরেশন রমজান মাস উপলক্ষে গরুর মাংসের দাম ৫২৫ টাকা নির্ধারণ করে দিয়েছে। কিন্তু অনেক প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত দামের চেয়ে ২৫ থেকে ৭৫ টাকা বেশি দামে মাংস বিক্রি করছে। অর্থাৎ ৫২৫ টাকার গরুর মাংস বিক্রি করছে ৫৫০ থেকে ৬০০ টাকায়। এ ছাড়া অনেকে আইন অনুযায়ী মূল্য তালিকা টাঙায়নি। এসব অভিযোগে এ সব প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়।’

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে মাংস ব্যবসায়ী সমিতির বৈঠক করে রোজায় মাংসের দাম নির্ধারণ করা হয়। নির্ধারিত দাম অনুযায়ী, রমজান মাসে দেশি গরুর মাংস ৫২৫, বোল্ডার (বিদেশি) গরুর মাংস ৫০০, মহিষ ৪৮০, ছাগল ও ভেড়ার মাংস ৬৫০ এবং খাসির মাংস ৭৫০ টাকা কেজি নির্ধারণ করা হয়।

শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here