‘শেখ হাসিনা বাংলাদেশের জন্য আশীর্বাদ’

স্টাফ রিপোর্টার

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, শেখ হাসিনা বাংলাদেশের জন্য আশীর্বাদ। শেখ হাসিনাকে রক্ষা করতে হবে। তাহলে বাংলাদেশ উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবে।

তিনি বলেন, দুষ্ট লোকের অভাব নেই। তারা সব সময় শেখ হাসিনার ক্ষতির চেষ্টা করছে। এ জন্য শেখ হাসিনাকে পাহারা দিয়ে তাকে রক্ষা করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু একাডেমি আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

আবদুল মোমেন বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর শেখ হাসিনা দীর্ঘ ছয় বছর প্রবাস জীবন কাটিয়েছেন। তাকে আওয়ামী লীগের সভাপতি করার পর তিনি বাংলাদেশে ৮১ সালের ১৭ মে প্রত্যাবর্তন করেন। তার প্রত্যাবর্তনে ভঙ্গুর আওয়ামী লীগ আবার শক্তিশালী হয়ে ওঠে।

তিনি আরও বলেন, শুধু তাই নয়, দলকেও তিনি পরপর চারবার ক্ষমতায় আনেন। ক্ষমতায় আসার পর তিনি আইনের মাধ্যমে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ বাতিল করেন। বঙ্গবন্ধু হত্যার সঙ্গে যারা জড়িত ছিল তাদের বিচার করেন। এভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে আইসের শাসন প্রতিষ্ঠা করেন। এ দেশের মানুষ যাতে সুখে শান্তিতে বসবাস করতে পারে সে জন্য বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করছেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশকে নিয়ে যারা এক সময় কটূক্তি করতো, বাংলাদেশকে যারা এক সময় দরিদ্র দেশ হিসেবে দেখতো এবং পত্রিকায় কলাম লিখত তারাই আজ লিখছে বাংলাদেশ সম্ভবনাময় দেশ। এ দেশ এগিয়ে চলেছে দ্রুত গতিতে।

বঙ্গবন্ধু একাডেমির সহ-সভাপতি শেখ ইকবাল খোকনের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদার, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু, অধ্যাপক আবদুল মান্নান চৌধুরী, ড. সিদ্দিকুর রহমান, অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, এম এ করিম, এস এম তফাজ্জল হোসেন, হুমায়ুন কবির মিজি, সিনিয়র সাংবাদিক মানিক লাল ঘোষ, কাজী বসির আহমেদ, খায়রুজ্জামান ফরিদ।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে