গল টেস্ট : জয়ের দ্বারপ্রান্তে শ্রীলঙ্কা

ক্রীড়া ডেস্ক

দিমুথ করুনারত্নে এবং লাহিরু থিরিমানে যেভাবে ব্যাট করছেন, তাতে গল টেস্টের শেষ দিনে শ্রীলঙ্কার জয় প্রায় নিশ্চিত। ২৬৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কা নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করেছে ৫০ ওভার। কোনো উইকেট হারায়নি। রান করেছে ১৩৩।

এর আগে দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেটে ১৯৫ রানে আজ শনিবারের খেলা শুরু করে নিউজিল্যান্ড। তাদের ইনিংস গুটিয়ে যায় ২৮৫ রানে। লক্ষ্যে ছুটতে গিয়ে করুণারত্নে ও থিরিমানের হাফসেঞ্চুরিতে জয়ের পথে ছুটছে শ্রীলঙ্কা।

৬৩ রানে মাঠে নামা ওয়াটলিং বেশিক্ষণ ক্রিজে টিকতে পারেননি নতুন সকালে। তার ১৭৩ বলে ৭৭ রানের ইনিংসের ইতি টানেন লাহিরু কুমারা। পেছনে প্রতিপক্ষ উইকেটরক্ষক নিরোশান ডিকবেলাকে ক্যাচ দেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। সমারভিলের সঙ্গে তার ৪৬ রানের জুটি ভেঙে যায়।

পরে একা হাতে লড়াই করে গেছেন সমারভিলে। তার সঙ্গে ৩৬ রানের নবম উইকেট জুটিতে ২৬ রান করে আউট হন ট্রেন্ট বোল্ট। এই জুটিও ভাঙেন কুমারা।

এজাজ প্যাটেলকে (১৪) ফিরিয়ে ২৫ রানের শেষ জুটি ভাঙেন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। ১১৮ বলে ৪০ রান করে অপরাজিত থাকেন সমারভিলে। লাসিথ এম্বুলদেনিয়া ৪ উইকেট নিয়ে শ্রীলঙ্কার সেরা বোলার। তিনটি পান ধনঞ্জয়া, দুটি কুমারার।

লক্ষ্যে নেমে ক্রিজ আঁকড়ে ছিলেন করুণারত্নে ও থিরিমানে। লাঞ্চের পর মাঠে নেমে দ্বিতীয় সেশনে ৭৬ রান যোগ করেন তারা স্কোরবোর্ডে। আলোকস্বল্পতার কারণে শেষ সেশনে মাত্র ১৮ ওভার খেলা হয়, সেখানে আরও যোগ হয় ৫৭ রান। দুজনই ফিফটি করেছেন। ৭১ রানে অপরাজিত আছেন অধিনায়ক করুণারত্নে, আর ৫৭ রানে খেলছেন থিরিমানে।

এই জুটিতে একটি রেকর্ডও ভেঙেছেন দুই ওপেনার। শেষ ইনিংসে রেকর্ড ১৩৩ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়ে দিন শেষ করেন করুণারত্নে ও থিরিমানে। ২০১৪ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১২৪ রানের রেকর্ডটি পেছনে ফেলেছেন তারা। ওই রেকর্ডেরও ভাগীদার ছিলেন করুণারত্নে, তার সঙ্গী ছিলেন কৌশল সিলভা।

শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে