সুরমার আবর্জনা অপসারণে ৩ ব্রিটিশ এমপি

সিলেট প্রতিনিধি

সিলেট শহর ভাগ করে বয়ে গেছে সুরমা নদী। এক সময়ের প্রমত্তা এই নদীতে শীত মৌসুমে দেখা দেয় নাব্য সংকট। জেগে ওঠে চর। একই সঙ্গে নদীতে অবাধে ময়লা-আবর্জনা ফেলায় পানি হচ্ছে দূষিত। এ কারণে কমে যাচ্ছে মাছসহ জলজ উদ্ভিদ।

এই নদী দূষণমুক্ত করতে ‘ক্লিন সুরমা গ্রিন সিলেট’ নামের দীর্ঘমেয়াদি প্রজেক্ট চালুর উদ্যোগ নেয় সিলেটের কিছু উদ্যোমী তরুণ। চলতি বছরের ২১ জুন প্রজেক্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সিলেটের সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। তাদের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন তিনি।

চলমান এই প্রজেক্টের পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচিতে বাংলাদেশ সফররত তিন ব্রিটিশ এমপির নেতৃত্বাধীন ২২ সদস্যের কনজারভেটিভ ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশ (CFOB)-এর প্রতিনিধি দলের সদস্যরা যোগ দিয়েছেন। সোমবার প্রায় দুই ঘণ্টা তারা ক্বিনব্রিজের পাশে সুরমার দক্ষিণ তীরের ময়লা-আবর্জনা অপসারণ করেন।

এই তিন এমপি হচ্ছেন- কনজারভেটিভ ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট অ্যান মেইন, ভাইস প্রেসিডেন্ট পাউল স্কলি এবং বব ব্ল্যাক মেন।

তাদের ভাষ্য, সিলেটের সঙ্গে ব্রিটেনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বিদ্যমান। এখানকার তরুণ সমাজ যেভাবে পরিবেশ রক্ষায় এগিয়ে এসেছে, তা আসলেই দৃষ্টান্ত। আমরাও তাদের সঙ্গে পরিবেশ রক্ষার আন্দোলনে এখানে অংশ নিতে পেরে গর্বিত।

‘ক্লিন সুরমা গ্রিন সিলেট’- প্রজেক্ট সংশ্লিষ্টরা জানান, প্রজেক্ট শুরু থেকেই সিলেট সিটি কর্পোরেশন তাদের সবধরনের সহায়তা করে আসছে। এই প্রজেক্টে ব্রিটিশ এমপিদের অংশগ্রহণ নতুন মাইলফলক।

সোমবারের এ পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে বাংলাদেশ স্কাউটস রেলওয়ে ডিস্ট্রিক্ট,  ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ, সাইকেল ট্রাভেলার্স অফ সিলেট, সোশ্যাল ওয়ার্কার্স অফ সিলেট, রুরাল টু আরবান, অণুবীক্ষণসহ অনেক সামাজিক সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকেরা অংশ নেন।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে