পদ্মা সেতুর ৩ হাজার ১৫০ মিটার দৃশ্যমান

মত ও পথ প্রতিবেদক

নতুন বছরের প্রথম সপ্তাহেই পদ্মা সেতুতে সফলভাবে বসানো হয়েছে ২১তম স্প্যান। আজ সোমবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর ৪ ও ৫ নম্বর পিলারে বসানো হয়েছে স্প্যানটি। এর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হলো সেতুটি ৩ হাজার ১৫০ মিটার লম্বা কাঠামোতে।

আজ সোমবার দুপুর ১২টার দিকে তিয়ানহু নামের একটি ক্রেন ৪ ও ৫ নাম্বার পিলারে স্প্যানটি বসিয়ে দেয়। চলতি মাসে আরও তিনটি স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানা গেছে।

এর আগে, গত ৩১ ডিসেম্বর বছরের শেষ দিনে পদ্মা সেতুতে বসানো হয় ২০তম স্প্যান। ওইদিন সেতুর ১৮ ও ১৯ নম্বর পিলারের ওপর সফলভাবে বসানো হয় ‘৩-এফ’ নামের স্প্যানটি।

পদ্মাসেতু প্রকল্প এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, সেতুর মোট ৪২টি পিলারের মধ্যে ৩৬টি পিলারের কাজ শতভাগ শেষ হয়েছে। বাকি রয়েছে ছয়টি পিলার (৮, ১০, ১১, ২৬, ২৭, এবং ২৯ )। এসব পিলার এর কাজ এপ্রিলে পুরোপুরি শেষ হবে।

সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানান, জানুয়ারি মাস থেকে প্রতিমাসে তিনটি করে স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

এদিকে, সেতুর সড়ক পথে ২ হাজার ৯৩১টি রোডওয়ে স্ল্যাব বসে গড়ে উঠবে। আর রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে ২ হাজার ৯৫৯টি।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়েছে। মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কম্পানি (এমবিইসি) ও নদীশাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো।

২০২১ সালের জুন মাসের মধ্যে এই সেতুর কাজ সম্পন্ন হবে বলে ইতিপূর্বে সড়ক ও সেতু পরিপবন মন্ত্রী ওবায়েদুল কাদের সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে