‘ট্রাম্পের উসকে দেয়া উত্তেজনায়ই তেহরানে ইউক্রেনের বিমান বিধ্বস্ত’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।
কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। ছবি: সংগৃহীত

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, সাম্প্রতিক যুক্তরাষ্ট্র যদি কিছুটা উত্তেজনা উসকে না দিত তবে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রে বিধ্বস্ত বিমানের যাত্রীরা আজও বেঁচে থাকতেন।

সোমবার তিনি বলেন, আমি মনে করি, সেখানে কোনো উত্তেজনা ছিল না। যদি সম্প্রতি সেখানে কোনো উত্তেজনা না থাকতো, ওই কানাডীয়রা এখন পরিবারে সঙ্গে তাদের বাসায় থাকতেন।

গ্লোবাল টেলিভিশনে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি আরও বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে আজ খুবই পরিষ্কার যে একটি পরমাণু অস্ত্রবিহীন ইরান যেমন দরকার, তেমনি আঞ্চলিক উত্তেজনাও নিয়ন্ত্রণে রাখা উচিত।

সাম্প্রতিক এই উত্তেজনা যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপের মাধ্যমেও ডেকে আনা হয়েছে বলেও মন্তব্য করেছেন কানাডীয় প্রধানমন্ত্রী।

বুধবার তেহরান থেকে উড্ডয়নের পরে ইরানি ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ইউক্রেনের আন্তর্জাতিক এয়ারলাইনসের বোয়িং ৭৩৭ বিধ্বস্ত হয়। এতে বিমানটির ১৭৬ যাত্রীর সবাই নিহত হয়েছেন, যাতে ৫৭ কানাডীয়ও রয়েছেন।

গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মার্কিন ড্রোন হামলায় ইরানের সবচেয়ে প্রভাবশালী জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহত হয়েছেন। এরপরেই দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা ইরান-মার্কিন উত্তেজনা নতুন উচ্চতায় চলে যায়।

জবাবে ইরাকে মার্কিন ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে ইরান। যদিও তাতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। এটাকে উত্তেজনা প্রশমনের চেষ্টা হিসেবে দেখছেন আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়।

কিন্তু কয়েক ঘণ্টা পরে ইরানের বিপ্লবী গার্ডের একটি ইউনিট ভুলবশত গুলি করে ইউক্রেনের যাত্রীবাহী বিমানটি গুলি করে বিধ্বস্ত করেন

শেয়ার করুন
  • 81
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    81
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here