বাগেরহাটে বিএনপি ও জাতীয় পার্টির প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল

বাগেরহাট প্রতিনিধি

উপ-নির্বাচন
প্রতীকী ছবি

বাগেরহাট-৪ (মোরেলগঞ্জ-শরণখোলা) আসনে উপনির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী কাজী খায়রুজ্জামান শিপন ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী সাজন কুমার মিস্ত্রির মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। এ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. আমিরুল আলম মিলনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে আজ রোববার বিকেলে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলী বিএনপি ও জাপা প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল এবং আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষণা করেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলী জানান, এ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির তিনজন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে একমাত্র আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। ঋণখেলাপি ও পৌরকর পরিশোধ না করায় বিএনপি প্রার্থীর এবং জাতীয় পার্টির প্রার্থী ঋণখেলাপি হওয়ায় তাদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

তিনি বলেন, মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীরা আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নির্বাচন কমিশনে আপিল করতে পারবেন। প্রার্থীদের আপিলের তিন কার্যদিবসের মধ্যে কমিশন তাদের প্রার্থিতার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে।

বিএনপি প্রার্থী কাজী খায়রুজ্জামান শিপন বলেন, আমার ঋণখেলাপির বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন। এছাড়া পৌরকরের বিষয়টি আমাকে যথাসময়ে অবহিত করা হয়নি।

জাপা প্রার্থী সাজন কুমার মিস্ত্রি বলেন, ব্যক্তিগতভাবে আমি ঋণখেলাপি নই। অন্যের ঋণের জামিনদার হিসেবে আমাকে ঋণখেলাপি দেখানো হয়েছে।

গত ১০ জানুয়ারি বাগেরহাট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ডা. মোজাম্মেল হোসেনের মৃত্যু হলে আসনটি শূন্য হয়। গত ৬ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন কমিশন উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে। তফসিল অনুযায়ী আগামী ২১ মার্চ এই আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here