‘বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণে ছিল স্বাধীনতার সুস্পষ্ট দিক নির্দেশনা’

মোহাম্মদ সজিবুল হুদা

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেছেন, ৭ই মার্চের ভাষণের মধ্যে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা-ই অন্তর্নিহিত ছিলো। বঙ্গবন্ধু তার এই ঘোষণার মাধ্যমে মুক্তিকামী বাংলার মানুষের মধ্যে মুক্তির আকাঙ্ক্ষা জাগিয়ে তুলে ছিলেন। সেই সঙ্গে পশ্চিম পাকিস্তানিদের টনকও নাড়িয়ে দিয়ে ছিলেন। এ ভাষণের মধ্যে আমাদের স্বাধীনতার সুস্পষ্ট দিক নির্দেশনা ছিল। মাত্র ১৮ মিনিটের কালজয়ী ভাষণে রচিত হয় একটি ইতিহাস।

ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসন আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদ বলেন, ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু এমন একটি নির্দেশ দিয়ে ছিলেন যে নির্দেশ আমার ভিতরে আগুনের মতো আগুনের মতো জ্বলজ্বল করেছে। আমাকে একটা বিশাল মানুষে পরিবর্তন করে দিয়েছে। মনে হয়েছে আমার একটা লাঠি দিয়ে একটি ট্যাংকের মোকাবেলা করতে পারব এবং তাই হয়েছিল। আমাদের কাছে কিছুই্ ছিল না। আমাদের অস্ত্র ছিল না, আমাদের মধ্যে সেনাবাহিনী ছিল না তবু আমরা লড়ে ছিলাম। এটাই ছিল ৭ মার্চের বক্তৃতা।

তিনি বলেন, ৭ মার্চের বঙ্গবন্ধুর অবিভাষণ ইতিহাসের গতিপথকে পরিবর্তন করে দিয়েছিল। বাংলাদেশ নামে কোনো দেশের অস্তিত্ব পৃথিবীর বুকে ছিল না। কোন একসময় এই অঞ্চলটার নাম ছিল পূর্ব বাংলা, কোন একসময় এটা ছিল পূর্ব পাকিস্তান। এটা কখনোই বাংলাদেশ নামে ছিল না। কিন্তু ৭ মার্চের পর থেকেই এটি বাংলাদেশ হল। আমরা পূর্ব পাকিস্তান ছাত্রলীগের পরিবর্তে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বলতে থাকি এবং যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে থাকি।

সাবেক এই ছাত্রনেতা বলেন, জাতির পিতার এই ভাষণটি ধর্ম-বর্ণ-বয়স-লিঙ্গ নির্বিশেষে সব বাঙালিকে জয় বাংলার সৈনিকে রূপান্তরিত করে ছিল। বাঙালিকে এমন মন্ত্রে উজ্জীবিত করেছিল এই ভাষণ, যে তার পক্ষে যুদ্ধ ও স্বাধীনতা এবং ত্যাগ ও বীরত্বের বাহিরে আর কোনো বিষয় নিয়ে ভাবা সম্ভব ছিল না। তাঁর এই ভাষণ পুরো জাতিকে এক ধ্যানে মহান ব্রতে উদ্দীপ্ত করেছিল। নয় মাসের মুক্তিযুদ্ধে জয় বাংলা ছিল রণধ্বনি, মুজিব ছিলেন মহানায়ক আর ৭ই মার্চের ভাষণ ছিল স্বাধীনতার অনুপ্রেরণার অফুরন্ত উৎস।

শেয়ার করুন
  • 1K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1K
    Shares

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে