চসিক ও পাঁচ উপ-নির্বাচন নিয়ে সিদ্ধান্ত দুই-একদিনের মধ্যে

মত ও পথ প্রতিবেদক

করোনা পরিস্থিতিতে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচন এবং পাঁচ আসনে উপ-নির্বাচন হবে কি-না, সেই সিদ্ধান্ত আগামী দুই-একদিন পর নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর কেক কেটে নির্বাচন ভবন থেকে যাওয়ার পথে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ বিষয়ে কথা বলেন সিইসি।

আগামী ২১ মার্চ ঢাকা-১০, গাইবান্ধা-৩ ও বাগেরহাট-৪ আসনে উপ-নির্বাচন এবং ২৯ মার্চ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচন, বগুড়া-১ ও যশোর-৬ উপ-নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।

সিইসি বলেন, এখন পর্যন্ত আমরা নির্বাচন বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেইনি। আরো দুই-একটা দিন দেখি। কারণ, নির্বাচনের  ব্যাপক প্রস্তুতি শেষের দিকে। প্রার্থীরা বলেছেন, তারা সাবধানে নির্বাচনী প্রচারণা করবেন। কিন্তু নির্বাচন যেন বন্ধ না হয়ে যায়। আমরা বলেছি, যেন বিকল্পভাবে তারা ভোটারদের কাছে ভোট চাবে জনসমাগম না করে। কারণ আমাদেরতো জীবনের সব কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাচ্ছে না।

নূরুল হুদা বলেন, ২১ (ঢাকা-১০ আসন) তারিখের নির্বাচন করার চিন্তা আছে এখনও। যদি পরিস্থিতি একেবারেই নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়, তখন অবশ্যই আমরা বিবেচনা করব। কিন্তু এখন পর্যন্ত আমরা চাচ্ছি, নির্বাচনটা হয়ে যাক।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখনও বিবেচনা করা হয় নাই। এটা নিয়েও আমরা চিন্তা করব। পরিস্থিতি আরেকটু দেখি। তবে এর পর করোনা পরিস্থিতিতে আরো কোনো নির্বাচন করা হবে না বলে জানান তিনি। 

শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে