ভোট না পেছালে প্রয়োজনে সরে দাঁড়াবো: ডা. শাহাদাত

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

বিশ্বব্যাপী মহামারি আকার ধারণ করা প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসের কারণে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচন পেছানোর দাবি জানিয়েছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন। ভোট না পেছালে প্রয়োজনে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার হাছানুজ্জামানের কাছে ভোট পেছানোর লিখিত অভিযোগ দিয়ে বের হয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ডা. শাহাদাত হোসেন।

ডা. শাহাদাত বলেন, ‘আমাদের কাছে নির্বাচন মুখ্য নয়, মানুষের জীবন আগে। দেশে স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ। সব কিছুর ওপর একটা সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তাহলে কেন নির্বাচন বন্ধ করা হচ্ছে না? দেশে একটা আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। তারপরও কেন সরকার নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত, জানি না।

এ সময় বিএনপির প্রার্থী জানান, নির্বাচনী প্রচারণা বাদ দিয়ে তারা জনগণকে করোনাভাইরাস নিয়ে সতর্ক করছেন। পাশাপাশি জনগণের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করছেন।

দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনা করে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচন স্থগিতের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি নেতারা।

আগামী ২৯ মার্চ চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন এবং দুটি আসনে উপনির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে আগামীকাল শনিবার তিনটি আসনে উপনির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। বিভিন্ন মহল থেকে নির্বাচন পেছানোর দাবি জানানো হলেও নির্ধারিত সময়ে ভোটগ্রহণে অনড় নির্বাচন কমিশন। চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনের ব্যাপারেও অনড় অবস্থানে ইসি।

এদিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী শুক্রবার সকালে তার নিজ বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন পেছানোর দাবি জানান। তিনি বলেন, কোটি কোটি মানুষের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নির্বাচনের অর্থ কী?

খসরু বলেন, এখনই নির্বাচন বন্ধ করে জনগণকে নিরাপদ অবস্থানে ফিরে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হোক। জনগণ দরজা বন্ধ করে দিচ্ছে, মানুষের কাছে এ অবস্থায় নির্বাচন প্রধান বিষয় নয়। নির্বাচন স্থগিত করা হোক। তা না হলে আমরা এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব কি-না, সে প্রশ্ন চলে আসবে। কারণ সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য আমরা নির্বাচন করছি। আমাদের রাজনীতি মানুষের জন্য।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে