তামিম-মুশফিকের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা উপভোগ করেন সাকিব

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ব্যাটিং পারফরম্যান্স বিবেচনায় সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম যেন সমান্তরালে এগোচ্ছেন। পরিসংখ্যান আর রেকর্ড বইয়ে তিনজনের লুকোচুরি তো আছেই। সার্বিক দিক বিচারেও কে সবার সেরা, এ নিয়ে বাঁধতে পারে তুমুল বিতর্ক। দুই সতীর্থ তামিম ও মুশফিকের সাথে এই প্রতিদ্বন্দ্বিতা উপভোগ করেন সাকিব।

সম্প্রতি ক্রিকবাজের পক্ষ থেকে ভারতের জনপ্রিয় ক্রিকেট বিশ্লেষক হার্শা ভোগলের সাথে আলাপকালে সাকিব বলেন, ‘হ্যাঁ এটা দারুণ এক প্রতিদ্বন্দ্বিতা। এটা দলের জন্যও ভালো। দলের ভালো ফলাফলের জন্য এমন প্রতিযোগিতা থাকা উচিত। কেউ ১০০ করলে আপনার ইচ্ছা করবে আমি ১২০ রান করি। তিন ফরম্যাটে পরিসংখ্যানের দিক থেকেও আমরা তিনজন খুব কাছাকাছি।’

বাংলাদেশের ক্রিকেটে এই তিন তারকার অবদান সম্পর্কে বলে শেষ করতে হলে হাতে রাখতে হবে প্রচুর সময়। দেশের বা দলের হয়ে কী করলেন, তা অবশ্য এখনই ভাবতে চান না সাকিব। আপাতত ২০২৩ বিশ্বকাপকেই নজর দিচ্ছেন এই অলরাউন্ডার।

সাকিব বলেন, ‘এখন আমাদের উচিত ২০২৩ বিশ্বকাপ নিয়ে ভাবা। বাংলাদেশের ক্রিকেট এবং আমাদের (তিনজনের) জন্য এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। এখন তাই খেলা নিয়েই ভাবা উচিত। কী করেছি সেটা কয়দিন পরই নাহয় ভাবা যাবে!’

তবে সাকিব মনে করেন, তিন ক্রিকেটার অবসর নেওয়ার পর তাদের অবদান ভালো করে বোঝা যাবে। তার ভাষ্য, ‘আমরা তিনজন যখন একসাথে অবসর নিব সেটা হবে সেরা সময়। আমরা অনূর্ধ্ব-১৫ থেকে একসাথে খেলছি। এখনো একসাথে আছি। আশা করি আরও কিছু বছর একসাথে থাকবো। ক্যারিয়ার শেষে আমরা আলোচনা করবো দেশের ক্রিকেটের জন্য কী কী করলাম।’

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে