গরিবরা ক্ষুধার জ্বালায় হাহাকার করছে: মির্জা ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনায় মানুষের পাশে বিএনপির সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়াকে সরকার কোনোভাবে বরদাশত করতে পারছে না বলে অভিযোগ করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ রোববার রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল বলেন, দেশের গরিব মানুষ ক্ষুধার জ্বালায় হাহাকার করছে।

তিনি বলেন, প্রতিহিংসাপরায়ণ বর্তমান সরকার বিএনপিসহ দেশের বিরোধী দলগুলোর নেতাকর্মীদের ওপর জুলুম-নির্যাতনের স্টিম রোলার চালিয়ে নিজেদের একচ্ছত্র আধিপত্য প্রতিষ্ঠিত করতে সীমাহীন হিংস্ররূপ ধারণ করেছে। আর এই উদ্দেশ্য পূরণে গুম, খুন, অপহরণ ছাড়াও বিরোধী নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের মাধ্যমে কারান্তরীণ করতে বেপরোয়া হয়ে ওঠেছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বর্তমানে করোনাভাইরাসের দুর্যোগকালীন দেশে গরিব মানুষ ক্ষুধার জ্বালায় হাহাকার করছে। কিন্তু এই অসহায় ও ক্ষুধার্ত মানুষের পাশে বিএনপির সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়াকে কোনোভাবেই বরদাস্ত করতে পারছে না সরকার। আর সে জন্যই বিএনপি নেতাকর্মীরা যখন গরিব ও দুস্থ মানুষদের সাহায্যার্থে এগিয়ে এসেছে তখন তাদের গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হচ্ছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, করোনা ও কর্তৃত্ববাদ একইসঙ্গে হিংস্ররূপ ধারণ করেছে। গণতান্ত্রিক শক্তির ওপর কর্তৃত্ববাদের আঘাত আরও তীব্র রূপ ধারণ করেছে। আর এরই ধারাবাহিকতায় রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার উল্লাপাড়া উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক বেলাল সরকারকে আজ মিথ্যা ও বানোয়াট মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বেলাল সরকার একজন হার্টের রোগী। বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর এ ধরনের নিপীড়ন ও জুলুম নিঃসন্দেহে দেশের জন্য এক অশনিসংকেত। তবে সরকারের ফ্যাসিবাদী আচরণের অবসান ঘটাতে জনগণ এখন ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে।

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে