সিলেটে পর্দা উঠল চলচ্চিত্র উৎসবের, অংশ নিয়েছে ১১২ দেশ

সিলেট প্রতিনিধি

সিলেটে ১০ দিনব্যাপী চলচ্চিত্র উৎসবের চতুর্থ আসরের পর্দা উঠেছে। এতে অংশ নিয়েছে ১১২ দেশ। জমা পড়া ৩,০৬১টি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রর মধ্যে প্রদর্শিত হচ্ছে ১০৯টি।

স্বাধীন ধারার চলচ্চিত্র নির্মাণকে উৎসাহ প্রদানের লক্ষ্যে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ এই উৎসবের আয়োজন করেছে।

রোববার রাতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, মহামারীর সময়ের এই উৎসব ঘরবন্দি মানুষকে বিনোদনের খোরাক জোগাবে।

রোববার রাতে এই উৎসবের ভার্চুয়াল উদ্বোধন হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মতিয়ার রহমান হাওলাদার, চলচ্চিত্র নির্মাতা মোর্শেদুল ইসলাম ও সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দফতরের পরিচালক অধ্যাপক ড. মিঠু চৌধুরী।

সিকৃবি চলচ্চিত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক এম সাইফুর রহমানের সঞ্চালনায় ও সভাপতি ইফতেখার আহমেদ ফাগুনের সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠিত হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্র নির্মাতা মোর্শেদুল ইসলাম বলেন, আশির দশকে বাংলাদেশে যে সুস্থধারার চলচ্চিত্র আন্দোলন ও চলচ্চিত্র সংসদ আন্দোলন আমরা শুরু করেছিলাম, সেই ধারা অব্যাহত রাখতে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদের চলচ্চিত্র উৎসব অগ্রণী ভূমিকা রাখছে।

উপাচার্য ড. মতিয়ার রহমান হাওলাদার বলেন, দর্শক হলবিমুখ হয়েছিলেন ভালো ও সুস্থধারার চলচ্চিত্রের অভাবে। বর্তমানে দেশব্যাপী চলচ্চিত্র সংসদগুলো সুস্থধারার চলচ্চিত্র নির্মাণে উৎসাহ জোগাচ্ছে এবং সিলেট চলচ্চিত্র উৎসব আগামীতে এই শুদ্ধচর্চার আরও প্রসার ঘটাবে।

মহামারীর সময়ে এই উৎসব ঘরবন্দি মানুষের বিনোদনের খোরাক জোগাবে এবং করোনাপরবর্তী সময়ে উৎসবের আগামী বছরের আয়োজন আমরা উদযাপন করতে আশাবাদী।

সিকৃবি চলচ্চিত্র সংসদের সভাপতি ইফতেখার আহমেদ ফাগুন জানান, আগামী ১৫ জুলাই পর্যন্ত এই উৎসব চলবে। উৎসবের প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত চলচ্চিত্র বিশেষজ্ঞ প্রেমেন্দ্র মজুমদার।

জুরি বোর্ডে দায়িত্ব পালন করছেন বাংলাদেশি চলচ্চিত্র নির্মাতা আশরাফ শিশির, ওয়াহিদ ইবনে রেজা, মোক্তাদির ইবনে ছালাম, অভিনেতা মনোজ কুমার, বাংলাদেশি চলচ্চিত্র সমালোচক সাদিয়া খালিদ রীতি ও ভারতীয় চলচ্চিত্র সমালোচক সিদ্ধার্থ মাইতি।

তিনি জানান, ১০ দিনব্যাপী উৎসবে চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর পাশাপাশি চলচ্চিত্রের বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।

যেখানে অংশ নিচ্ছেন দেশ-বিদেশের চলচ্চিত্র নির্মাতা, সমালোচক, লেখক, অভিনেতা ও অন্যান্য কলাকুশলী। সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ ২০১৭ সাল থেকে নিয়মিত সিলেট চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন করে আসছে। তবে এ বছরেই প্রথম করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ঠেকাতে ভার্চুয়ালি বা অনলাইনভিত্তিক হচ্ছে এই আয়োজন।

চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা ও সমাপনী অনুষ্ঠান সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদের ওয়েবসাইট (https://saufs.org), সিলেট চলচ্চিত্র উৎসবের ওয়েবসাইট (https://festival.saufs.org), ফেসবুক পেজ (http://facebook.com/saufsofficial) ও ইউটিউব চ্যানেলে (http://youtube.com/saufsofficial) প্রচার করা হবে। অনলাইনে উৎসবের সব আয়োজন উপভোগ করার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছে আয়োজক কর্তৃপক্ষ।

আর উৎসবের বিস্তারিত জানা যাবে এই লিংকে- https://festival.saufs.org/press-corner/
https://festival.saufs.org/

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে