চীনকে ‘চাপে রাখতে’ সাগরে ৪ দেশের নৌ মহড়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

লাদাখ সীমান্তে দিল্লি-বেইজিং চলমান উত্তেজনার মধ্যেই অস্ট্রেলিয়া, জাপান ও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ভারতের যৌথ নৌ মহড়ার খবর পাওয়া গেল।

ভারত মহাসাগরে শুরু হবে এই চতুর্দেশীয় নৌ-মহড়া। তবে কবে থেকে শুরু হবে তা জানা যায়নি।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাতে রোববার এ তথ্য জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

খবরে বলা হয়, ১৩ বছর পরে মালাবার নৌ মহড়ায় যোগ দিতে চলেছে অস্ট্রেলিয়া। ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে চীনের একাধিপত্য এবং আগ্রাসন কমানোর জন্য সক্রিয় জাপান ও আমেরিকা জোট বেঁধেছিল ভারতের সঙ্গে। শুরু হয়েছিল মালাবার ত্রিদেশীয় নৌ মহড়া।

গোটা পরিকল্পনাটি ছিল কৌশলগতভাবে চীনকে জলপথে চাপে রাখার জন্য। পরে মূলত আমেরিকার উদ্যোগে ২০০৭ সালে অস্ট্রেলিয়া যোগ দেয় ওই মহড়ায়।

আনন্দবাজার জানায়, কূটনৈতিক চ্যানেলে বিষয়টি নিয়ে ভারতের কাছে আপত্তি জানিয়েছিল চীন। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে চীনের জলপথে শত্রুতা দীর্ঘ দিনের। চীনকে চটাতে না চেয়ে ভারতও বিষয়টি নিয়ে আর উৎসাহ দেখায়নি।

সূত্রের খবর, গালওয়ান উপত্যকার পরে চীন সম্পর্কে দৃষ্টিভঙ্গি বদলেছে সাউথ ব্লকের। গত মাসে মালাবার মহড়া নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের সঙ্গে ভিডিও বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কথা হয়েছে।

ওই বৈঠকে দুদেশ তাদের সম্পর্ককে সামগ্রিক কৌশলগত সম্পর্কের পর্যায়ে নিয়ে গেছে। দুদেশের মধ্যে প্রতিরক্ষা এবং নিরাপত্তা সংক্রান্ত সমন্বয় আরও বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ভারতের কূটনীতিকদের মতে, চীনের স্পর্শকাতরতার দিকটি নিয়ে আর ভাবার অবকাশ নেই তাদের। নিজেদের সুরক্ষার বিষয়টিই এখন অগ্রাধিকারের মধ্যে পড়ছে।

একইভাবে ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান এবং অস্ট্রেলিয়া একটি চতুর্দেশীয় অক্ষ তৈরির পরও চীন অসন্তোষ প্রকাশ করেছিল। সেই অক্ষ তৈরি হয়েছিল ঠিকই, কিন্তু তা নিয়ে কোনো সক্রিয়তা দেখা যায়নি। সূত্রের খবর, এখন এই অক্ষকেও জাগিয়ে তোলার জন্য সক্রিয়তা দেখা যাচ্ছে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর মধ্যে।

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে