১২ নভেম্বর সাহারা ও নাসিমের আসনে ভোট

নিজস্ব প্রতিবেদক

আগামী ১২ নভেম্বর আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন এবং মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের উপনির্বাচনে ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

আজ সোমবার নির্বাচন কমিশনের সভা শেষে ইসি সচিব মো. আলমগীর এ দুই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন।

তফসিল অনুযায়ী আগ্রহীরা ১৩ অক্টোবর পর্যন্ত মনোনয়ন দাখিল করতে পারবেন। ১৫ অক্টোবর বাছাই শেষে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সুযোগ থাকবে। ১২ নভেম্বর ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) এ দুই আসসে ভোট হবে।

সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে ৯ জুলাই ঢাকা-১৮ আসন শূন্য ঘোষণা করা হয়। আর মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুর পর গত ১৩ জুন সিরাজগঞ্জ-১ আসনটি শূন্য হয়।

সংবিধানের ১২৩ অনুচ্ছেদের ৪ দফা অনুযায়ী- সংসদের কোনো সদস্যপদ শূন্য হলে তার ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করতে হবে। তবে নির্বাচন কমিশনারের মতে কোনো দৈব-দুর্বিপাকের কারণে এ নির্ধারিত মেয়াদের মধ্যে নির্বাচন সম্ভব না হলে পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে ভোট করতে হবে।

মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুর পর গত ১৩ জুন সিরাজগঞ্জ-১ আসনটি শূন্য হয়। শূন্য হওয়ার পর ৯০ দিন পূর্ণ হয় ১০ সেপ্টেম্বর। আর পরবর্তী ৯০ দিন শেষ হবে আগামী ৯ ডিসেম্বর। এছাড়া ঢাকা-১৮ আসন শূন্য হয় গত ৯ জুলাই। শূন্য হওয়ার ৯০ দিন পূর্ণ হবে ৬ অক্টোবর। আর পরবর্তী ৯০ দিন শেষ হবে ২০২১ সালের ১৪ জানুয়ারি।

এদিকে ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বী পাঁচ প্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টায় আগারগাঁওয়ে অবস্থিত নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে (ইটিআই) প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক তুলে দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

প্রতীকপ্রাপ্তদের মাঝে আওয়ামী লীগসমর্থিত প্রার্থী কাজী মনিরুল ইসলাম নৌকা, বিএনপিসমর্থিত প্রার্থী সালাহ্উদ্দিন আহমেদকে ধানের শীষ প্রতীক দেয়া হয়।

এ ছাড়া জাতীয় পার্টির সমর্থিত প্রার্থী মীর আব্দুস সবুরকে লাঙ্গল, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি সমর্থিত প্রার্থী মো. আরিফুর রহমান সুমন মাস্টারকে আম এবং বাংলাদেশ কংগ্রেস সমর্থিত প্রার্থী মো. আনছার রহমান শিকদারকে ডাব প্রতীক দেয়া হয়েছে।

ঢাকা-৫ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লা গত ৬ মে মারা গেলে আসনটি শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে