রায়হান হত্যা: আকবরকে পালাতে সহায়তাকারী এসআই বরখাস্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক

আকবরকে পালাতে সহায়তাকারী এসআই বরখাস্ত

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হান আহমদের মৃত্যুর ঘটনায় এসআই আকবর হোসেন ভূঞাকে পালাতে সহায়তা এবং সিসি ক্যামেরার ফুটেজ (আলামত) নষ্ট করার অভিযোগে এসআই হাসান উদ্দিনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তাকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

আজ বুধবার বিকালে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) উপকমিশনার (ডিসি-উত্তর) আজবাহার আলী শেখ তাকে বরখাস্ত করেন।

universel cardiac hospital

বুধবার সন্ধ্যায় সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাময়িক বরখাস্তকৃত এসআই আকবর হোসেন ভূঞাকে ফাঁড়ি থেকে পালাতে সহায়তা করা ও তথ্য গোপনের অপরাধে এসআই হাসান উদ্দিনকে সাময়িকভাবে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

এর আগে দেশজুড়ে আলোচিত রায়হান হত্যার ঘটনায় সিলেট মহানগর পুলিশের বন্দরবাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়াসহ চার পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এছাড়া প্রত্যাহার করা হয় আরও তিন পুলিশ সদস্যকে।

মঙ্গলবার সাময়িক বরখাস্তকৃত কনস্টেবল টিটু চন্দ্রের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে গত ১১ অক্টোবর ভোরে রায়হান উদ্দিন (৩৩) নামে এক যুবক মারা যান। নিহত যুবকের পরিবারের অভিযোগ, পুলিশ তাকে নির্যাতন করে হত্যা করেছে।

সে সময় পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, ছিনতাইয়ের দায়ে নগরের কাষ্টঘর এলাকায় গণপিটুনিতে নিহত হন রায়হান। যদিও ওই এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ গণপিটুনির কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। এলাকাবাসীও বলেছিল, কাষ্টঘরে গণপিটুনির কোনো ঘটনা ঘটেনি।

এই ঘটনায় নিহত রায়হানের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নী বাদী হয়ে ১২ অক্টোবর কোতোয়ালি থানায় অজ্ঞাতদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্ত করছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

শেয়ার করুন
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে