মামুন-নূরদের গ্রেফতার করতে ৭২ ঘণ্টার আলটিমেটাম ঢাবি ছাত্রীর

ঢাবি প্রতিনিধি

নুরুল হক নূর ও হাসান আল মামুন।
নুরুল হক নূর ও হাসান আল মামুন। ফাইল ছবি

বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক (সাময়িকভাবে অব্যাহতিপ্রাপ্ত) হাসান আল মামুন ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নূরসহ ধর্ষণের মামলায় এজাহারভুক্ত আসামিদের গ্রেফতার করতে ৭২ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রী ফাতেম আক্তার বিথী।

আজ বৃহস্পতিবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই আলটিমেটাম দেন।

সংবাদ সম্মেলনে ঢাবি ছাত্রী ফাতেমা আক্তার বিথী বলেন, আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মামুন, নূর ও বাকি যে আসামিরা আছে তাদের যদি গ্রেফতার না করা হয় তবে সামনে আরও কঠোর কর্মসূচি দেব। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে কোনো তদন্ত কমিটি না হওয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেন ফাতেমা।

এ সময় ধর্ষণের বিচারের দাবিতে গত ৮ অক্টোবর থেকে চলা তার অবস্থান কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক সমাপ্তির কথাও জানান ফাতেমা আক্তার বিথী।

এর আগে গত ২০ সেপ্টেম্বর রাতে লালবাগ থানায় ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতা করার অভিযোগ এনে ছাত্র অধিকার পরিষদের (সাময়িককভাবে অব্যাহতিপ্রাপ্ত) আহ্বায়ক হাসান আল মামুন, নাজমুল হাসান, নুরুল হক নূর, মো. সাইফুল ইসলাম, নাজমুল হুদা ও আবদুল্লাহ হিল বাকির বিরুদ্ধে মামলা করেন ঢাবি ছাত্রী ফাতেমা আক্তার বীথি। এর মধ্যে মূল অভিযুক্ত হাসান আল মামুন আর নূরের বিরুদ্ধে ধর্ষণে সহায়তার অভিযোগ আনা হয়।

এরপর ২৩ সেপ্টেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নূরসহ তার ৬ সহযোগীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ, অপহরণ, ধর্ষণে সহযোগিতা ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চরিত্রহননের অভিযোগে শাহবাগ থানায় সাইবার বুলিংয়ের অভিযোগে আরও একটি মামলা দায়ের করেন ফাতেমা আক্তার বীথি। এরপর শুধু নূরের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা করা হয়।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here