করোনা: ১০ দেশেই ৭৫ ভাগ টিকা, ক্ষোভ জাতিসংঘের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

করোনার ভ্যাকসিন
করোনার ভ্যাকসিন। ছবি : ইন্টারনেট

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের টিকা বিতরণ ব্যবস্থাকে ‘চরম অসম ও অন্যায্য’ উল্লেখ করে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। এমন ব্যবস্থার সমালোচনা করে সংস্থার মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস জানিয়েছেন, মাত্র ১০ দেশের কাছে এখন পর্যন্ত উৎপাদন হওয়া টিকার ৭৫ ভাগ রয়েছে। টিকার সমতা আনাই এখন বড় পরীক্ষা।

বুধবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের উচ্চ পর্যায়ের ভার্চুয়াল বৈঠকে বক্তৃতায় এমন ক্ষোভ প্রকাশ করেন অ্যান্তনিও গুতেরেস। তিনি জানান, ১৩০টি দেশ এখনো টিকার কোনো ডোজ পায়নি।

বক্তৃতায় জাতিসংঘ প্রধান বলেন, ‘এই কঠিন মুহূর্তে টিকার সমতাই বিশ্ব সম্প্রদায়ের জন্য সবচেয়ে বড় পরীক্ষা।’

সকল দেশে টিকার ন্যায্য বণ্টন নিশ্চিতের জন্য সংশ্লিষ্টদের নিয়ে জরুরি ভিত্তিতে একটি বৈশ্বিক টিকা প্রয়োগ পরিকল্পনার আহ্বান জানিয়েছেন গুতেরেস। এতে বিজ্ঞানী, টিকা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ও অর্থ প্রদানকারীরা অন্তর্ভুক্ত থাকবেন।

অধিকাংশ দেশ টিকা কর্মসূচির আওতায় না আসায় সমন্বয়হীনতাকে দুষছেন গুতেরেস। তিনি বলেন, টিকার সুষম বণ্টনই সবচেয়ে জরুরি। যত দ্রুত সম্ভব প্রতিটি দেশ যেন টিকা পায় বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

বৈঠকে গুতেরেস জি ২০টি সদস্যভুক্ত অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী দেশগুলোর প্রতি জরুরি টাস্ক ফোর্স গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন। এতে অর্থ সহায়তা পাওয়া গেলে দ্রুত টিকা উৎপাদন করা সম্ভব বলে মনে করেন তিনি।

ইতিমধ্যে বিশ্বের উন্নত দেশগুলো নিজ দেশের জনগণকে টিকা প্রয়োগ করে আসছে। কিন্তু অনেক দরিদ্র ও উন্নয়নশীল দেশে টিকা না পৌঁছানো গেলে করোনা নিয়ন্ত্রণে আসা সম্ভব নয় মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •