কর্পোরেট কর বাড়িয়ে অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের পরিকল্পনা জো বাইডেনের

ডেস্ক রিপোর্ট

জো বাইডেন
ফাইল ছবি

উন্নয়নের মহাপরিকল্পনার ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। গত বুধবার (৩১ মার্চ) দেশটির অবকাঠামো উন্নয়নে দুই ট্রিলিয়ন ডলার ব্যয়ের সিদ্ধান্তের কথা জানান বাইডেন। এর মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর দেশটিতে সবচেয়ে বড় অবকাঠামো উন্নয়নের ঘোষণা দিলেন তিনি। মোট অঙ্কের এই অর্থের ব্যবস্থা করা হবে দেশের ধনীদের ওপর কর বাড়িয়ে। ২ লাখ কোটি ডলার অর্থ ব্যয় করে আগামী ৮ বছরের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের চেহারা পাল্টে দেবেন বাইডেন।

বাইডেন বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের এই উন্নয়নের জন্য সাধারণ মানুষের ওপর কোনো বাড়তি করের বোঝা চাপানো হবে না। যাদের আয় চার লাখ ডলার বা তার বেশি, তাদের করের হার ২১ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৮ শতাংশ করা হবে। ২ ট্রিলিয়ন ডলারের এই সরকারি কর্মসূচিতে অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা আসবে ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। জনগণকে সরাসরি সহযোগিতা করার আরেকটি পরিকল্পনা তিনি কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই ঘোষণা করবেন বলে জানান।

দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ধনীদের ওপর থেকে করের চাপ কমিয়েছিলেন। তবে বাইডেন ক্ষমতায় এসেই বিষয়টিতে ভারসাম্য আনার চেষ্টা করছেন।

বাইডেনের পরিকল্পনা, ২০ হাজার মাইল রাস্তার অবকাঠামো উন্নয়ন হবে। হাজার হাজার সেতু ঠিক করা হবে। সরকারি পরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়নে ব্যয় বরাদ্দ রাখা হবে। অনেক ইলেকট্রিক চার্জিং পয়েন্ট তৈরি করা হবে, বৈদ্যুতিক গাড়ির ব্যবহার বাড়াতে। পাওয়ার গ্রিড উন্নত করা হবে যেন নবায়নযোগ্য জ্বালানি ব্যবহার করা যায়। হাসপাতাল, স্কুল ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলোর অবকাঠামো উন্নয়ন হবে। এসব কাজের জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ পেতে করপোরেট কর ২১ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৮ শতাংশ করা হবে। আয়কর ব্যবস্থার ফাঁকফোকরগুলোও বন্ধ করা হবে।

এদিকে, প্রেসিডেন্টের এমন সিদ্ধান্তে চাঙ্গা হয়েছে মার্কিন শেয়ারবাজার। বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) প্রথমবারের মতো ৪ হাজার পয়েন্টের ওপরে গেছে যুক্তরাষ্ট্রের এস অ্যান্ড পি ৫০০ সূচক। বেড়েছে অন্য সূচকও। শুক্রবার ইতিবাচক প্রভাব ছিলো এশিয়ার শেয়ারবাজার।

শেয়ার করুন
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares