পাকিস্তানে আটকা পড়লেন শবনম

বিনোদন প্রতিবেদক

শবনম আজীবন সম্মাননা পেলেন পাকিস্তানে
বাংলাদেশের কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেত্রী শবনম

দেশের খ্যাতিমান অভিনেত্রী শবনম করোনার কারণে পাকিস্তানে আটকা পড়েছেন। ২৬ জুলাই দেশে ফেরার টিকিট কাটা ছিল তার। কিন্তু করোনার কারণে পাকিস্তানের সঙ্গে বাংলাদেশের বিমান যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আপাতত দেশে ফিরতে পারছেন না তিনি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অভিনেত্রী নিজেই।

কয়েক মাস আগে পাকিস্তান সফরে যান শবনম। শুরুতে ফয়সালাবাদে এক ভক্তের বাড়িতে ওঠেন। ফয়সালাবাদে মাস দুয়েক থাকার পর লাহোরে আরেক ভক্ত-বন্ধুর বাড়িতে যান। মাস তিনেক ধরে সেখানেই আছেন।

দীর্ঘসময় পাকিস্তানি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের কারণে লাহোরেও তার অনেক বন্ধু আছে। আছে চলচ্চিত্রের অনেক সহকর্মী আর পরিচিতজন।

৭০’র দশকে সিনেমায় কাজ শুরু করেন শবনম। পাকিস্তান আমল থেকে শুরু করে দেশ স্বাধীনের পরও দীর্ঘসময় তিনি দাপটের সঙ্গে বাংলা সিনেমায় অভিনয় করে খ্যাতি অর্জন করেন। তার সমসাময়িক অনেকেই আছেন পাকিস্তানে। তাদের সঙ্গে শবনমের যোগাযোগ আছে।

এ বিষয়ে শবনম গণমাধ্যমকে বলেন, এবার লম্বা সময় লাহোরে থাকার কারণে অনেকের সঙ্গেই দেখা হয়েছে। মাঝে করোনা একটু কমেছিল বলেই সম্ভব হয়েছে। এদিকে লাহোরে এখন সংক্রমণও বেড়েছে। ডেলটা ভেরিয়েন্টও পাওয়া যাচ্ছে। তাই কিছুটা আতঙ্কবোধ করছি।

৭০ দশকের শুরুতে শবনম পাকিস্তানের অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকা হিসেবে নিজের স্থান শক্ত করে তোলেন। ১৯৮৮ সালের দিকে শবনম বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের চলচ্চিত্রে সমানতালে অভিনয় করতে থাকেন। ৯০ দশকের শেষ ভাগে ঢাকায় স্থায়ীভাবে বাস করতে শুরু করেন। অর্ধশতাব্দীজুড়ে অভিনয়জীবনে ১৮০টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন তিনি।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •