ইমরানের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে বিদেশি বন্ধুরাই থাকবেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১১ আগস্ট পাক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করতে চলেছেন ইমরান খান। তবে তাঁর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে কোনও রাষ্ট্রনেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে না বলে ইসলামাবাদ সূত্রে খবর।

২৫ জুলাইয়ের সাধারণ নির্বাচনে একক বৃহত্তম দল হিসাবে উঠে এসেছে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)। তবে সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় আসন দখল করতে পারেনি পিটিআই। ফলে অন্য দলের সহযোগিতা প্রয়োজন হবে ইমরানের। তা সত্ত্বেও ইতিমধ্যেই তিনি ঘোষণা করেছেন, আগামী ১১ আগস্ট শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে হবে।

জল্পনা, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী-সহ সার্কভুক্ত দেশগুলির রাষ্ট্রনেতাদের আমন্ত্রণ জানাবেন বলে ঠিক করেছিলেন ইমরান খান। পরে পিটিআইয়ের মুখপাত্র ফাওয়াদ চৌধুরি টুইটারে সাফ জানান প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের নিয়ে সংবাদ মাধ্যমের জল্পনা সঠিক নয়। তিনি বলেন, “খুবই নিষ্ঠার সঙ্গে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানটি পালন করতে চাইছেন ইমরান। আইওয়ান-এ-সদর বা রাষ্ট্রপতি বাসভবনে খুবই সাধারণ ভাবে প্রধানমন্ত্রী শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানটি হবে।’’

ফাওয়াদ আরও বলেন, “কোনও রাষ্ট্রনায়কদের আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে না। পুরোপুরিভাবে এটি পাকিস্তানের অনুষ্ঠান। ইমরানের কাছের বন্ধুরা যাঁরা বিদেশে থাকেন কেবলই তাঁদের আমন্ত্রণ জানানো হবে। এক্কেবারেই জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠান হবে না এটি।”

শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমির খানকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ইমরান খান। বলিউডের তারকা অভিনেতা ছাড়াও ইমরানের আমন্ত্রিতদের তালিকায় রয়েছেন বাইশ গজে তাঁর প্রাক্তন প্রতিপক্ষ সুনীল গাওস্কর, কপিল দেব এবং নভজ্যোৎ সিংহ সিধুও।

তবে প্রাসাদের আরামে যে থাকতে চান না সে কথা আগেই জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান। আর সে দিকেই নজর রেখে বোধ হয় শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানও জাঁকজমকপূর্ণ করতে চাইছেন ইমরান খান।

 

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here