রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মার্কিন মডেল হাদিদ

বিনোদন ডেস্ক

মার্কিন জনপ্রিয় মডেল জিজি হাদিদ কক্সবাজারের জামতলি রোহিঙ্গা ক্যাম্প ঘুরে গেলেন। জানা গেছে, ইউনিসেফের আমন্ত্রণে তিনি এই সফর করেছেন। কক্সবাজার থেকে জামতলি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যাওয়ার পথে তিনি ছবি তুলেছেন। সেই ছবি গতকাল শুক্রবার দুপুরে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। তাঁর সেই পোস্ট থেকে জানা গেছে, গতকাল সকালে তিনি জামতলি রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন। ইউনিসেফ সেখানে পয়োনিষ্কাশনের উন্নত ব্যবস্থা, সুপেয় পানি আর শিক্ষা নিয়ে কাজ করছে।

জিজি হাদিদের বাবা মোহাম্মেদ হাদিদ আর মা ইয়োলোন্ডা হাদিদ। বাবা আবাসন ব্যবসায়ী আর মা ছিলেন মডেল। তাঁর বাবা ফিলিস্তিন-মার্কিন নাগরিক। তাঁর বাবা নাজারেথের রাজপুত্র এবং গালিলির শেখ দাহেল আল ওমরের বংশধর। জিজি হাদিদের জন্ম লস অ্যাঞ্জেলেসে।

জিজি হাদিদ ২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক মডেল পরিচালনা সংস্থা আইএমজি মডেলসের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন। ২০১৪ সালের নভেম্বরে মডেলস ডটকম-এর সেরা ৫০ মডেলের তালিকায় স্থান করে নেন। ২০১৬ সালে ব্রিটিশ ফ্যাশন কাউন্সিল বছরের সেরা আন্তর্জাতিক মডেল হিসেবে নির্বাচন করে তাঁকে।

এদিকে ব্রিটিশ পপ তারকা জেইন মালিক আর জিজি হাদিদের প্রেম ভাঙার কথা শোনা যায় সম্প্রতি। এরপর নাকি আবার জোড়াও লেগেছে। তাতেই খেপেছেন জিজির ভক্তরা। তাঁদের দাবি, জিজি ও জেইন কেবল লোক দেখানো প্রেম করছেন। জিজির ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে দেওয়া পোস্টে তাঁদের প্রেম নিয়ে একের পর এক নেতিবাচক মন্তব্য করছে ভক্তকুল। এতে বেজায় বিরক্ত জিজি। ভক্তদের অনুরোধ করলেন নেতিবাচক মন্তব্য দেওয়া বন্ধ করতে।

জিজি হাদিদকে তাঁর এক অনুসারী ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘জেইন এখন জিজিকে অনুসরণ করেন না। এমনকি তাঁর ছবিও দেখতে চান না।’ এর মধ্য দিয়ে ওই ভক্ত বোঝাতে চেয়েছেন, জেইন-জিজির মাঝে আর প্রেম নেই। এ রকম একের পর এক নেতিবাচক বক্তব্য জিজিকে তাঁর ভক্তরা ট্যাগ করেই যাচ্ছিলেন। শেষে বিরক্ত হয়ে ভক্তদের উদ্দেশে জিজি লেখেন, ‘দয়া করে এটি বন্ধ করো। এটা নেতিবাচক। তোমাদের নিয়ে আমার কোনো আগ্রহ নেই। তোমরা যাঁদের সম্পর্ক নিয়ে কথা বলছ, তাঁদের সম্পর্কে জানো না। এমনকি তোমরা তাঁর (জেইন) সম্পর্কে ৯৯ শতাংশই জানো না।’ জিজি অন্য এক পোস্টে লেখেন, ‘আমি তারকা হতে পারি। কিন্তু তার মানে এই নয় যে কোনো কিছুতেই আমি বিরক্ত হব না। আমিও মানুষ!’

এরপর জেইন মালিকের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে জিজি হাদিদ বলেন, তিনি আর এ বিষয়ে কথা বাড়াতে চান না। এ বিষয়ে এটাই তাঁর শেষ পোস্ট। ভক্তদের এসব বিষয় নিয়ে না ভেবে এমন কিছু নিয়ে ভাবতে বলেন, যা তাঁদের জীবনে অনুপ্রেরণা দেবে। যদিও অন্য এক সাক্ষাৎকারে জেইন স্বীকার করেছেন, তাঁদের দুজনের মাঝে কোনো খারাপ সম্পর্ক নেই। তবে প্রেম আছে কি না, সে প্রশ্নে জেইনের উত্তর ছিল, ‘আমরা এখনো ভালো বন্ধু।’

এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পকে নকল করে যুক্তরাষ্ট্রে বেশ সমালোচিত হন জিজি হাদিদ৷ জানা গেছে, ‘আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ড’ অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন তিনি। জিজি হাদিদ উপস্থাপনার একপর্যায়ে মেলানিয়া ট্রাম্পকে অনুকরণ করে কথা বলেন৷ তা শুনে উপস্থিত দর্শকদের মাঝে হাসির রোল ওঠে৷

কিন্তু এরপরই শুরু হয়ে যায় তুমুল সমালোচনা৷ অনেকেই মন্তব্য করেন, মানুষকে আনন্দ দেওয়ার নামে বিকৃতভাবে নকল করে জিজি আসলে মেলানিয়াকে অপমান করেছেন৷ পরে অবশ্য এর জন্য ক্ষমা চেয়েছেন জিজি হাদিদ৷

 

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here