উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে গুজব ছড়ানো হচ্ছে : আইজিপি

বিশেষ প্রতিবেদক

পরিকল্পিতভাবে দেশের ভেতর ও বাইরে থেকে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। উন্নয়নের অগ্রগতি রুখতে স্বার্থান্বেষী মহল তৎপরতা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

তিনি বলেন, তাদের সব আন্দোলন ব্যর্থ হওয়ার পর এই সহজ পথটি, অর্থাৎ ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর পথ বেছে নিয়েছে।

গুজব প্রতিরোধে পুলিশের করণীয় জানাতে আজ বুধবার রাজধানীর পুলিশ সদর দপ্তরের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন হয়। সেখানে এসব কথা বলেন জাবেদ পাটোয়ারী।

তিনি বলেন, গুজব সৃষ্টিকারীদের মধ্যে এক ব্যক্তি দুবাইয়ে থাকেন। তাকে পুলিশ শনাক্ত করেছে।

সম্প্রতি পদ্মা সেতু নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নানা ধরনের গুজবের জেরে গণপিটুনিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন অনেকে।

মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান জানান, এ-যাবৎ গণপিটুনিতে ছয়জন নিহত ও ১৫ জন আহত হয়েছেন।

আজ সেই গণপিটুনির ঘটনা প্রসঙ্গে পুলিশ মহাপরিদর্শক বলেন, গণপিটুনির ঘটনায় যারা নিহত হয়েছেন, তারা সবাই নিরীহ, কেউ ছেলেধরা নন।

জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, গুজব ও গণপিটুনির ঘটনায় এ পর্যন্ত ৩১টি মামলা হয়েছে। এসব ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ১০৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদের মধ্যে সরকারবিরোধী রাজনীতির সঙ্গে জড়িত লোকজন আছেন। এদের মধ্যে সরকারের সমর্থক কেউ গ্রেপ্তার হননি।

আইজিপি পাটোয়ারী বলেন, কোন পোস্ট দিয়ে গুজবের শুরু হয়েছে, তা পুলিশ এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি। গুজব ছাড়ানোর অভিযোগে ৬০টি ফেসবুক আইডি, ২৫টি ইউটিউব লিংক এবং ১০টি অনলাইন পোর্টাল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, মূলত দু’ভাবে গুজব ছড়িয়েছে। কেউ না বুঝে হুজুগে গুজব ছড়িয়েছে। আবার কেউ পরিকল্পিতভাবে ছড়িয়েছে।

গুজব সৃষ্টিকারীদের হুঁশিয়ার করে দিয়ে জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না। আপনি আইন হাতে তুলে নিলেন মানে অজান্তে হত্যা মামলায় জড়িয়ে গেলেন।

আইজিপি বলেন, আমাদের ওপর আস্থা রাখুন। সঠিক বিষয়গুলো বের করব।

কাল বৃহস্পতিবার থেকে গুজব প্রতিরোধে পুলিশ সচেতনতা সপ্তাহ পালন করবে জানিয়ে পুলিশপ্রধান বলেন, শুক্রবারের খুতবায় ইমাম সাহেবদের এ বিষয়ে কথা বলার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

আজ সাম্প্রতিক গণপিটুনির ঘটনার বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন আইজিপি। এসব ঘটনা নিয়ে পুলিশ কী করছে, তাও জানান। তিনি বলেন, প্রতিটি ঘটনার ভিডিও ফুটেজ দেখে প্রত্যেককে গ্রেপ্তার করা হবে। বাড্ডার ঘটনায় ইতোমধ্যে কয়েকজন গ্রেপ্তার হয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাবের ডিজি, ঢাকা মহানগর পুলিশ ও সদর দপ্তরের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে