খাগড়াগড় বিস্ফোরণ মামলায় চার বাংলাদেশিসহ ১৯ জনের কারাদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের কলকাতার খাগড়াগড় বিস্ফোরণের ঘটনায় চার বাংলাদেশিসহ ১৯ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির একটি আদালত।

আজ শুক্রবার বিকালে ব্যাঙ্কশাল আদালত এই সাজা ঘোষণা করে।

কারাদণ্ড পাওয়া দুই বাংলাদেশির নাম পাওয়া গেছে। তারা হলেন- শেখ রামাতুল্লা ও জাহিদুর ইসলাম। সাজা ভোগ শেষে তাদের দেশে ফেরত পাঠানোর নির্দেশও দিয়েছে আদালত।

গত বুধবার ১৯ অভিযুক্তকে দোষী সাব্যস্ত করে বিশেষ এনআইএ আদালত।  অভিযুক্তরা শুনানি চলাকালে দোষ স্বীকার করেন। তাদের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতা, দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা-সহ একাধিক ধারায় অভিযোগ ছিল।

শুক্রবার আদালতে খাগড়াগড় নিয়ে রুদ্ধদ্বার শুনানি হয়। বিচারক ১৯ অভিযুক্ত ব্যক্তিকে কথা বলার সুযোগ দেন। নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে সমাজের মূলস্রোতে ফেরার আবেদন জানায় তারা। বিপরীতে, দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানিয়েছিলেন সরকারি আইনজীবী।

দোষী সাব্যস্ত ১৯ জনের মধ্যে ছয়জনকে ১০ বছর, ১০ জনকে আট বছর এবং তিনজনকে ছয় বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

সাজা ঘোষণা করে বিচারক জানিয়েছেন, যারা ইতিমধ্যে পাঁচ বছর সাজা খেটেছে, তাদের বাকি পাঁচ বছর কারাবাস করলেই শাস্তির মেয়াদ পূর্ণ হবে।

বিস্ফোরণের ঘটনায় অন্যতম প্রধান অভিযুক্ত ছিলেন দুই নারী। বিস্ফোরণের আঘাতে ছিন্নভিন্ন দেহ সামনে পড়ে থাকা অবস্থাতেও তারা প্রমাণ বিলোপের চেষ্টা করেন।

২০১৪ সালের ২ অক্টোবর হিন্দু ধর্মাবলম্বীর অষ্টমীর দিন দুপুরে বর্ধমানের খাগড়াগড়ে বিস্ফোরণ ঘটে। এ ঘটনায় জামাতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি) জড়িত বলে ধারণা করা হয়।

বিস্ফোরণের পর ওই বাড়ি থেকেই গ্রেপ্তার হয় রাজিয়া বিবি ও আলিয়া বিবিকে। এ ঘটনায় মোট ৮০০ ব্যক্তির বক্তব্য গ্রহণ করে আদালত।

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে