ইফতারে যা খাবেন, যা খাবেন না

ফিচার ডেস্ক

রমজানে ইফতার অন্যতম একটি ইবাদত। সারাদিন রোজা শেষে ইফতার দিয়েই রোজা পূর্ণ করেন মুমিনরা। আর এ ইফতারে একটু বুঝেশুনে খাওয়া উচিত, না হলে গ্যাস্ট্রিকসহ নানা অসুবিধা হতে পারে। চলুন দেখে নেয়া যাক ইফতারে যা খাবেন, আর যা খাবেন না।

১. ইফতারে অবশ্যই শরবত রাখুন। চিনি ও লেবুর শরবত খেতে পারেন। শরবত খাওয়ার পর বিভিন্ন ফল যেমন, পাকা আম, খেজুর, কলা খাওয়া যেতে পারে। পরবর্তী সময়ে মুড়ি, ছোলা প্রভৃতি খেতে পারেন।

২. অনেকেই ইফতারের খাবার একত্রিত মাখিয়ে খেতে পছন্দ করেন। তবে খেয়াল রাখবেন যাতে মরিচ ও পেঁয়াজের পরিমান বেশি না হয়। কারণ অধিক স্বাদের জন্য বেশি পরিমাণ মরিচ-পেঁয়াজ গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

৩. অ্যাসিড সমৃদ্ধ ফল যেমন কাঁচা আম, আপেল, তেঁতুল, লেবু, বাতাবি লেবু, কামরাঙ্গা ইফতারের শুরুতে না খেয়ে শেষে খাওয়া ভালো। এতে আপনার শরীর চাঙ্গা হয়ে যাবে।

৪. সারাদিন না খেয়ে থাকার পর ইফতারে অধিক ভাজা ও তেল সমৃদ্ধ খাবার পেটে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই তেলে ভাজা খাবার কম খাওয়াই ভালো।

৫. ইফতারে কম মশলাযুক্ত খাবার খান। অধিক মশলাযুক্ত খাবার পেটে গ্যাস্ট্রিকের কারণে সৃষ্ট ক্ষত বাড়িয়ে তোলে এবং যন্ত্রণা বাড়িয়ে দেয়।

৬. ইফতারে খাওয়ার মাঝমাঝি দিকে পানি পান থেকে বিরত থাকতে হবে। এতে হজমে সহায়ক উপাদান সঠিকভাবে নিঃসৃত হবে।

৭. ইফতারে খালি পেটে চা-কফি খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। চা-কফি পেটে গ্যাস্ট্রিকের ব্যাথা বাড়িয়ে তুলতে পারে।

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে